বাগেরহাট প্রতিনিধি:

প্রবাসীর স্ত্রীকে মাসের পর মাস ধর্ষণ করে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বানানোর অভিযোগে ইয়ামিন নামক এক যুবকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছে ভুক্তভোগী।

ঘটনাটি ঘটে বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার তালবুনিয়া গ্রামে। অভিযুক্ত ইয়ামিনের বাবার নাম মতিয়ার শেখ।

ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগ বছর খানেক আগে ইয়ামিন তাকে জোর করে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের চিত্র মোবাইলের মাধ্যমে ধারন করে পরবর্তিতে তা তার প্রবাসী স্বামী ও অনলাইনে প্রকাশের ভয় দেখিয়ে মাসের পর মাস নিয়মিত তকে ধর্ষণ করে। যার ফলে সে এখন ৮মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

স্থানীয় রামপাল থানায় মামলা করার পর থেকে অভিযুক্ত ইয়ামিন গাঢাকা দিয়েছে বলে জানায় থানা পুলিশ।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনজুরুল আলম জানান, উপজেলার তালবুনিয়া গ্রামে বসবাস ভুক্তভোগী নারীর। ১ বছর ৭ মাস আগে তার স্বামী বিদেশে যান। এ সুযোগে ইয়ামিন গত ৫ জানুয়ারি রাত ১১টায় ওই গৃহবধূকে মুখে গামছা বেঁধে ধর্ষণ করেন। পরে তার নগ্ন ছবি মোবাইলে তুলে নেন।

ওসি আরও জানান, ঘটনার পর থেকে সুযোগ বুঝে ইয়ামিন ওই নারীকে তার ছবিগুলো দেখিয়ে মাসের পর মাস ধর্ষণ করেন। এর মধ্যে ভুক্তভোগী ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। এ কথা জানাজানি হয়ে গেলে ওই নারী রামপাল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ইয়ামিনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

ওসি আরও বলেন, ভুক্তভোগীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আর অভিযুক্ত ইয়ামিনকে গ্রেপ্তারে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালানো হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *