জেলা প্রতিনিধি,কক্সবাজার:

টেকনাফের সাবেক ওসি প্রদীপ খুবি ধূর্ত। তার কাছ থেকে কথা বের করতে আরো একদিন প্রয়োজন জানিয়ে আসামি প্রদীপকে আরো একদিনের রিমান্ডে নিয়েছে র‌্যাব। অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এ কথা জানান।

এদিকে লিয়াকতের পর এস আই নন্দদুলাল স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন আদালতে।

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যার এক মাসে সবকিছুই যেন আটকে আছে আসামি ওসি প্রদীপকে কেন্দ্র করে। দফায় দফায় রিমান্ডে নিয়েও হত্যা রহস্যের জট এখনো খোলাসা হয়নি। এর মধ্যেই রোববার ইন্সপেক্টর লিয়াকত দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন।

সোমবার (৩১ আগস্ট) সকালে এসআই নন্দদুলাল রক্ষিতকে ১৬৪ ধারার জবানবন্দি দিতে নিয়ে আসা হয় আদালতে।

দুপুর একটার পর তৃতীয় দফা রিমান্ড শেষে ওসি প্রদীপকে একাই তোলা হয় আদালতে। বাদীপক্ষ থেকে চাওয়া হয় ১ দিনের রিমান্ড। অন্যদিকে রিমান্ড আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ ও ডিভিশন চান প্রদীপের আইনজীবী। যুক্তি তর্ক উপস্থাপন শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

বাদীপক্ষ আইনজীবি অ্যাড. মোহাম্মদ মোস্তফা বলেন, সে একজন সিরিয়াল কিলার, সে ২০৪ জন লোককে খুন করেছে আমরা সেট অবহিত হয়েছি। আসামি একজন পুলিশ, সে জানে কিভাবে লুকাতে হয়।

আসামিপক্ষের আইনজীবি অ্যাড. এহসানুল হক বলেন, ওসি প্রদীপ এখনও রিমান্ডে আছেন। ১৫ দিনের বেশি রিমান্ড দেয়া যায় না। তবুও কেন তারা রিমান্ড দিচ্ছে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *