নিজস্ব প্রতিবেদক:


২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শিক্ষা খাতে বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে। এবারের বাজেটে শিক্ষাখাতে ধরা হয়েছে ৭১ হাজার ৯৫৩ কোটি টাকা।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ কথা জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ২০২০-২১ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে এ খাতে বরাদ্দের পরিমাণ ছিল ৬৬ হাজার ২০৭ কোটি টাকা। এ হিসাবে আকারের দিক থেকে শিক্ষা খাতে বরাদ্দ বেড়েছে পাঁচ হাজার ৭৪৬ কোটি টাকা। আর শতাংশের হিসাবে শিক্ষায় সার্বিক বরাদ্দ বেড়েছে আট দশমিক ৬৭ শতাংশ।

আগামী অর্থবছরের বাজেটে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য বরাদ্দ প্রস্তাব করা হয়েছে ৪৫ হাজার ৬৩৯ কোটি টাকা। এর মধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের জন্য বরাদ্দ ৩৬ হাজার ৪৮৬ কোটি টাকা। নয় হাজার ১৫৩ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রস্তাব করা হয়েছে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের জন্য। এ ছাড়া প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২৬ হাজার ৩১৪ কোটি টাকা।

২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শিক্ষা খাতে উন্নয়ন বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ২৪ হাজার ৬৫২ কোটি টাকা। এর মধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের জন্য উন্নয়ন বরাদ্দ ১৪ হাজার ৩২০ কোটি টাকা। দুই হাজার ৩১০ কোটি টাকা উন্নয়ন বরাদ্দ প্রস্তাব করা হয়েছে কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের জন্য। এ ছাড়া প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য উন্নয়ন বরাদ্দ রাখা হয়েছে আট হাজার ২২ কোটি টাকা।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা খাতে বরাদ্দ এক হাজার ৩৭৪ কোটি টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

এর আগে সংসদের অধিবেশন শুরুর পর স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর অনুমোদনক্রমে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী।

প্রস্তাবিত বাজেটে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা খাতে বরাদ্দ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ২০২১-২২ অর্থ বছরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষায় ২৬ হাজার ৩১১ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করছি, যা বর্তমানে ২০২০-২১ অর্থবছরে ছিল ২৪ হাজার ৯৩৭ কোটি টাকা।

সাত দশমিক দুই শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করে আগামী অর্থবছরের জন্য ছয় লাখ তিন হাজার ৬৮১ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *