অন্তর্জাতিক ডেস্ক:
২০২০ সাল শেষের আগেই করোনাভাইরাসের ‘বিষ দাঁত’ ভাঙা হবে, কিছুটা এই সুরেই ফের হুঙ্কার ছাড়লেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

গতকাল রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী মনোনীত হওয়ার পরে মঞ্চে দাঁড়িয়ে তিনি বললেন, ‘‘আমেরিকার জিনিয়াস বিজ্ঞানীরা রেকর্ড সময়ে প্রতিষেধক তৈরি করে ফেলবে। এ বছর শেষ হওয়ার আগেই নিরাপদ ও কার্যকরী ভ্যাকসিন হাতে পাব আমরা। আর তার পর ধ্বংস হবে ভাইরাস।’’

বিশ্বে আড়াই কোটির কাছাকাছি সংক্রমণ। মৃতের সংখ্যা ৮ লাখ ৩৬ হাজার ছাড়িয়েছে। ৬০ লাখের উপরে করোনা-সংক্রমণ শুধু আমেরিকাতেই। মারা গেছেন ১ লাখ ৮৪ হাজার মানুষ। এই পরিস্থিতিতে টলমল ট্রাম্পের আসন। সামনেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। পরিস্থিতি সামলাতে শাসক দলের ‘ব্যর্থতাই’ বিরোধীদের অন্যতম এজেন্ডা। এ অবস্থায় ভোট-মঞ্চ থেকে ট্রাম্পের ভ্যাকসিন নিয়ে বার্তা কতটা সত্যি, আর কতটা রাজনৈতিক, সে নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।

তাছাড়া, ট্রাম্প যতই বিজ্ঞানীদের মহান বলুন না কেন, তাদের কোনও পরামর্শই মানছেন না। গতকাল রিপাবলিকান ভোট-মঞ্চে দাঁড়িয়ে ট্রাম্প যখন বলছেন, ‘‘বিজ্ঞান, বাস্তব ও তথ্য, এই তিনটি বিষয়কে মাথায় রেখে আমরা করোনার বিরুদ্ধে লড়ছি,’’ তখনও তার মুখে মাস্ক নেই। মঞ্চের সামনে উপস্থিত ছিলেন ট্রাম্পের অন্তত দেড় হাজার সমর্থক। দল নেতার মতো তাদেরও বেশির ভাগের মুখে মাস্ক নেই। তারা গায়ে-গা ঘেঁষে বসেছেন।ট্রাম্পের সমর্থনে গলা ফাটিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

কোথায় তখন ‘সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং’! এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ট্রাম্প-ঘনিষ্ঠ, হোয়াইট হাউসের এক শীর্ষস্থানীয় কর্তা বললেন, ‘‘ও নিয়ে আর কী করা যাবে। সবাই এক-এক করে সংক্রমিত হবেন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *