রাজশাহী প্রতিনিধি:

আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজশাহীর পদ্মা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় ঘটেছে। এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীসহ দুজন এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক মো. জাকির হোসেন বিষয়টি নিশ্চত করেছেন।

তিনি জানান, দুর্ঘটনা কবলিত নৌকায় মোট ১৩ জন যাত্রী ছিলেন। তারা বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের নবগঙ্গা এলাকায় পদ্মা নদীতে নৌকাভ্রমণে বের হয়েছিলেন। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল নিখোঁজ দুজনকে উদ্ধারের তৎপরতা চালাচ্ছে। নৌকার যাত্রীদের কয়েকজন ঢাকা থেকে রাজশাহীতে বেড়াতে এসেছিলেন।

জানা গেছে, নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীর নাম সুচনা (২০)। তিনি ঢাকার ধানমন্ডির বাসিন্দা। আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ (এআইইউবি) এর তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী তিনি। তিনি পবা উপজেলার খোলাবোনা এলাকায় তারা চাচা জালাল উদ্দিনের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। নিখোঁজ অপরজন রিমনের (১৪) বাড়ি নওগাঁয়। এ ছাড়া সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে ইসতিয়াক আহমেদ ওরফে হৃদয় (২৭) নামের একজনকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালের ৪২ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। তার বাড়ির ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

অপরদিকে নৌকার মাঝি পিয়ারুল ইসলাম জানান, নৌকাটি ছোট ছিল। তিনি তাদের নিষেধ করতে করতেই তারা নৌকা ছেড়ে দেন। কিছুক্ষণ পরই তা ডুবে যায়। তার হাতেই তার নিজের নৌকার হাল ছিল। তিনি নৌকার ইঞ্জিন চালু করে সেখানে গিয়ে সাতজনকে উদ্ধার করেছেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *