আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

হারিকেন ইটার তাণ্ডবে লন্ডভন্ড মধ্য আমেরিকার অনেক দেশ। ভারী বৃষ্টি ও বন্যায় ভূমিধসে চাপা পড়েছে বহু ঘর-বাড়ি। মেক্সিকো ও কলম্বিয়ায় ৭০ জন ও গুয়েতেমালায় ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে আরও অনেকে।

শুক্রবার (০৬ নভেম্বর) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো এ খবর জানিয়েছে।

ভারী বৃষ্টিতে বন্যার কারণে তলিয়ে গেছে বহু এলাকা। ঘর-বাড়ি পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় অনেকে আশ্রয় নিয়েছেন ঘরের চালের ওপর।

গুয়েতেমালার প্রেসিডেন্ট আলেজান্দ্রো জিয়াম্মাত্তি বলেছেন, মারা যাওয়াদের অর্ধেকই একটি শহরের, যেখানে ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া অন্তত ২০টি বাড়ি কাদা মাটির নিচে চাপা পড়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার (০৩ নভেম্বর) হারিকেনের শক্তি নিয়ে পার্শ্ববর্তী নিকারাগুয়ায় আঘাত হাতে ‘ইতা’। পরে ঝড়টি শক্তি হারিয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে গুয়েতেমালায় এগিয়ে যায়।

ঝড়ের পর এক সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট আলেজান্দ্রো বলেন, অর্ধেক দিনেরও কম সময়ে পুরো মাসের বৃষ্টিপাত হয়েছে। তীব্র বর্ষণের কারণে উদ্ধারকর্মীরা ক্ষতিগ্রস্ত শহর স্যান ক্রিস্টোবাল ভেরাপাজসহ অন্যান্য এলাকায় পৌঁছাতে পারছেন না।

হারিকেনটি দুর্বল হয়ে গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়ে পরিণত হয়ে কিউবা ও মেক্সিকো উপসাগরের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে বলে জানিয়েছে ওই অঞ্চলের আবহাওয়া বিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *