নিজস্ব প্রতিবেদক:

দেশে এতদিন অনুমোদিত ডিলারের মাধ্যমে স্বর্ণ আমদানির অনুমতি থাকলেও স্বর্ণালঙ্কার আমদানির বৈধতা ছিল না।গতকাল বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা ও নীতি বিভাগ থেকে এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানানো হয়েছে, স্বর্ণ আমদানি নীতিমালা ২০১৮ অনুসরণ করেই অনুমোদিত ডিলাররা স্বর্ণালঙ্কার আমদানি করতে পারবেন।

ফলে অনুমোদিত ডিলাররাই এখন বৈধভাবে স্বর্ণালঙ্কার আমদানি করতে পারবেন। এক্ষেত্রে স্বর্ণ আমদানি নীতিমালা ২০১৮ অনুসরণ করতে হবে আমদানি কারকদের।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, এর আগে অনুমোদিত ডিলারের মাধ্যমে সোনা আমদানির অনুমতি থাকলেও স্বর্ণালঙ্কার আমদানির বৈধতা ছিল না। এই প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে স্বর্ণালঙ্কার আমদানির অনুমতি ও নীতিমালা নির্ধারণ করা হয়েছে।

দেশে স্বর্ণ আমদানি নীতিমালা ২০১৮ তে বলা হয়েছে, ‘আবেদনকারী নিবন্ধিত লিমিটেড কোম্পানি হলে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ন্যূনতম এক কোটি টাকা থাকতে হবে। আমদানিকৃত স্বর্ণবার ও স্বর্ণালঙ্কার নিরাপদে রাখার জন্য থাকতে হবে সাড়ে ৭০০ বর্গফুটের কার্যালয়।আবেদনকারীদের অফেরৎযোগ্য ৫ লাখ টাকার পে-অর্ডার দিতে হবে লাইসেন্সের জন্য।

আবার স্বর্ণ আমদানির ক্ষেত্রে প্রথমত ২ বছর মেয়াদি লাইসেন্স দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এই লাইসেন্স ২ বছর পরপর নবায়ন করতে হয়। অনুমোদন দেয়া লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হওয়ার ৩ মাসের মধ্যেই নবায়ন করতে হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *