নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী:

রাজশাহীর তানোরের মুন্ডুমালা মাহালীপাড়ার সাধুজন মেরী ভিয়ান্নী গির্জা। এই গির্জার ফাদার প্রদীপ গ্যাগরীর বিরুদ্ধে, এক ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে তিন দিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার ধর্ষণের অভিযোগে গির্জার এই ফাদারকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ঘটনার শিকার ওই স্কুলছাত্রীর স্বজনরা জানান, গত ২৬ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টার দিকে গির্জার পাশে ঘাস কাটতে গিয়েছিল। এরপর সে আর বাড়ি ফেরেনি। অনেক খুঁজেও তার সন্ধান পায়নি পরিবার। এ নিয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন নিখোঁজের বড় ভাই।

এর দুদিন পর ২৮শে সেপ্টেম্বর সকালে জানা যায়, স্থানীয় গির্জায় রয়েছে কিশোরীটি। পরে শালিস বসে গীর্জার ভেতরে।

গ্রামের মোড়ল ও মুন্ডুমালা সরকারি হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক কার্মেল মার্ডি বৈঠকের পর ফাদার প্রদীপকে অপসারণ করে পাঠিয়ে দেয় রাজশাহীতে। আর কিশোরীকে রাখেন গীর্জার ভেতরে সিস্টারদের কাছে। খবর পেয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পুলিশ গীর্জায় গিয়ে কিশোরীটিকে উদ্ধার করেন।

মঙ্গলবার রাতে কিশোরীর ভাই বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগ এনে চার্চের ফাদারের নামে মামলা করেছেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *