নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট:


সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা থেকে মা ও তার দুই সন্তানের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বাড়ির গৃহকর্তাকে।

উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামের বিন্নীবাজার এলাকার একটি বাড়ি থেকে বুধবার সকালে লাশ তিনটি উদ্ধার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি।

নিহতরা হলেন- ফতেপুর গ্রামের হিফজুর রহমানের স্ত্রী আলেয়া বেগম, তার ১১ বছর বয়সী ছেলে মিজান এবং ৫ বছর বয়সী মেয়ে তানিসা।

স্থানীয়রা জানান, সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি হওয়ায় প্রতিবেশীরা হিফজুরের ঘরের সামনে গিয়ে ভেতর থেকে গোঙানির শব্দ শুনতে পান। পরে ভেতরে ঢুকে খাটের ওপর তিনজনের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পান এবং হিফজুরকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ তিনটি উদ্ধার করে এবং হিফজুরকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

গোয়াইনঘাট থানার ডিউটি অফিসার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) তমিজ উদ্দিন ঢাকাটাইমসকে হত্যাকাণ্ডের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিন্নীবাজার এলাকায় একই পরিবারের তিনজনকে গলাকেটে হত্যার খবর পেয়ে সকাল আটটার দিকে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করেন।

কে বা কারা তাদের হত্যা করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তা নিশ্চিত করতে পারেনি। কেন তাদের খুন করা হয়েছে স্থানীয় লোকজনও তা বলতে পারছেন না। রাতের কোনো এক সময় তাদের হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *