সিরাজগঞ্জ,প্রতিনিধি:

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও কয়েকদিন টানা বর্ষণের কারণে যমুনা, ফুলজোড়, করতোয়াসহ অভ্যন্তরীণ নদ-নদীর পানি বেড়েই চলেছে।পানি বাড়ার কারণে আবার তলিয়ে যেতে শুরু করেছে সিরাজগঞ্জের নিম্নাঞ্চল। মাঠের ফসল ডুবে আছে পানির তলায়।

সিরাজগঞ্জ পাউবো সূত্র বলছে, চলতি বছরের জুনের প্রথম থেকেই যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ ও কাজিপুর পয়েন্টে বাড়তে শুরু করে। গত ২৮ জুন উভয় পয়েন্টেই বিপৎসীমা অতিক্রম করে। এরপর ৪ জুলাই থেকে আবার কমতে শুরু করে এবং ৬ জুলাই বিপৎসীমার নিচে নেমে যায় যমুনার পানি।

 গতকাল শুক্রবার (০২ অক্টোবর) সিরাজগঞ্জ হার্ডপয়েন্টে রেকর্ড করা হয়েছে ১৩ দশমিক ৪৪ মিটার। এখানে ২৪ ঘণ্টায় ১৫ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অপরদিকে কাজিপুর পয়েন্টে রেকর্ড করা হয়েছে ১৫ দশমিক ৪৩ মিটার পানি। ২৪ ঘণ্টায় ১১ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ১৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি আরও দু-একদিন বাড়তে পারে।
কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, যমুনা নদীতে পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নিম্নাঞ্চল নিমজ্জিত হয়ে তলিয়ে যাচ্ছে ফসল। এরই মধ্যে জেলার বেলকুচি,চৌহালী,কাজিপুর,সদর ও শাহজাদপুর উপজেলার চর ও নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে ৩ হাজার ৪০৬ হেক্টর জমির রোপা আমন, ৯৩১ হেক্টর জমির মাসকলাই, ২৩৪ হেক্টর শীতকালীন সবজি, ৮০ হেক্টর বাদাম ও ৬৮ হেক্টর জমির মরিচ পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *