নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে চতুর্থ দিনের মতো চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। শুরুর তিনদিন কঠোর কড়াকড়ির মধ্যে সীমিত পরিসরে মানুষ ও গাড়ি চলাচল করেছে।
কিন্তু চতুর্থ দিনে অনেকটা ঢিলেঢালার মতো পালন হচ্ছে সর্বাত্মক লকডাউন। যদিও লকডাউন বাস্তবায়নে চেকপোস্ট বসিয়ে নিয়মিত তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

শনিবার সকালে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সড়কের অলিতেগলিতে রিকশা ও অটোরিকশার চালকরা ওত পেতে রয়েছেন। সুযোগ পেলেই নিকটবর্তী স্থানে যাত্রী যাতায়াত করছেন। মূলত পুলিশের চেকপোস্ট এড়িয়ে চালকরা যাত্রীদের আনা-নেয়া করছে।

প্রথম তিনদিন জরুরি সেবা ছাড়া অন্যান্য গাড়ি কম চোখে পড়েছে। কিন্তু সর্বাত্মক লকডাউনের চতুর্থ দিনের সকালে প্রাইভেট গাড়ির যাতায়াত সড়কে উল্লেখযোগ্য। সড়কের অনেক জায়গায় যানজটের দৃশ্য চোখে পড়েছে।

এদিকে পুলিশ সদস্যরা চেকপোস্টগুলোতে নিয়মিত তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। গাড়ি থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রেখেছে তারা। তবে বেশিরভাগ গাড়ির চালকরা সন্তোষজনক জবাব দিতে পারায় গাড়িগুলোকে ছেড়ে দেয়া হচ্ছে।

ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন গলিতে নির্দিষ্ট স্থান পর পর বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধক গড়ে তুলেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। তবে অনেক জায়গায় বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধক গড়ে বাজার-হাট হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত চলতি বছরের প্রথম লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। সেই সাতদিনের লকডাউনে জনগণের উদাসীনতা দেখেই ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত দ্বিতীয় দফায় সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করে সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *