মো: শামীম হোসেন,সাভার:
সাভারে  মেয়ে ও মেয়ের জামাইয়ের অত্যাচার, নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী মা-বাবা।
আজ মঙ্গলবার দুপুরে সাভার থানা রোডের ইয়াং কিং রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভোগী বাবা আজিজুর রহমান রফিক ও তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম।
সংবাদ সম্মেলনে আজিজুর রহমান রফিক বলেন, আমার মেয়ে শিল্পী আক্তার শীলা (৩৫) ও তার স্বামী আলী ইমরান তুষার (৪২) আমার অপর দুই মেয়ে ও তার মাকে দেওয়া ৫ শতাংশ জমি জবর দখলের চেষ্টা করছে গত এক বছর থেকে। জমি না পেয়ে আমাদের বাড়িতে থেকেই আমাদের নানাভাবে অত্যাচার করছে। আমি তাদের হাত থেকে বাঁচতে চাই। এঘটনায় কোর্টে ও থানায় মামলাসহ সাধারন ডায়েরি করেও কোন ফল হয়নি।
সাধারন ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, সাভারের গেন্ডা মৌজার আর এস দাগ ৪২২, খতিয়ান ১২৮ জমির পরিমান ৫.২৫ শতাংশ এবং আর এস দাগ নং ২৬৯ আরএস ১৬৪২ খতিয়ান জমির পরিমান ২ শতাংশ হেবা মুলে প্রাপ্ত হয়ে ভোগ দখলে আছে হোসনেআরা বেগম। তার সৎ মেয়ে শিল্পী আক্তার শীলা ও তার স্বামী আলী ইমরান তুষার এই জমি জোরপূর্বক দখলের জন্য বিভিন্ন সময়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজসহ হুমকি প্রাদান করে আসছে।
এই জমি তাদের নামে দলিল করে দেওয়ার চাপ সৃষ্টি করে। চলতি বছরের গত ২৩ সেপ্টেম্বর রাত সারে ১০ টার দিকে বিবাদীসহ অজ্ঞাত আরও ১০ থেকে ১৫ জন সাথে নিয়ে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের ভয়ভীতি দেখায় এবং বাসার তালা ও সিসি ক্যামেরা ভাংচুর করে। এছাড়া বিভিন্নভাবে আমাদের ওপর অত্যাচার করে আসছে।
সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী আনোয়ারা বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, তাদের অত্যাচারে আমরা অতিষ্ঠ। মেয়ে ও মেয়ের স্বামীর হাত থেকে বাঁচার জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
এব্যাপারে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের একটি অভিযোগ পেয়ে তদন্ত করার জন্য ওসি ইন্টেলিজেন্ট নির্মল কুমার কে তদন্ত করার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়। সেই সময়ে তদন্ত করে বিষয়টি সমাধান করে দেওয়ার পরেও বিষয়টি মেনে না নিয়ে ঢাকায় গিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে বিষয়টি আবার ঘোলাটে করেন ভুক্তভোগীর মেয়ে ও তার স্বামী। ফলশ্রুতিতে ঘটনাটি বাঁধা গ্রস্থ হয়।
তিনি আরও বলেন, যদি থানায় আবার লিখিত অভিযোগ দেয় তাহলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *