উপজেলা প্রতিনিধি,সাভার:
সাভারে আট বছর বয়সী এক শিশুকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে দুই প্রতিবেশী ধর্ষণ করেছেন, এমন অভিযোগে মামলা হয়েছে। এ ছাড়া এক গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগও পাওয়া গেছে। এই দুই ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, সাভার সদর ইউনিয়নের চাঁপাইন এলাকায় একটি বাড়িতে বাবা মায়ের সাথে আট বছরের ওই শিশু ভাড়া থাকতো। তার বাবা-মা পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। এই সুযোগে শিশুটিকে গত কয়েকদিন ধরে চকলেটের লোভ দেখিয়ে একটি বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে আসছিল আতাহার আলী নামের এক ব্যক্তি।

এ ছাড়া ওই শিশুকে আরেক প্রতিবেশী সোহাগ মন্ডল ভয়-ভীতি দেখিয়ে একটি বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে আসছিল। দুইজনের ধর্ষণের শিকার হওয়ার পরে শিশুটি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তার বাবা-মাকে ধর্ষণের বিষয়টি জানায়।

বিষয়টি জেনে বাবা-মা সাভার মডেল থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ বুধবার রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে আতাহার আলী ও সোহাগ মন্ডলকে আটক করে। এ ঘটনায় শিশুটির পরিবারের সদস্যরা দুই ধর্ষণকারীর নামে সাভার মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এলাকাবাসী দুই ধর্ষণকারীর কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন।

অন্যদিকে সাভারের কমলাপুরের ভবানীপুর এলাকায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছেন নোয়াব আলী নামের আপন এক দেবর। পরে এলাকাবাসী ধর্ষণের চেষ্টাকারীকে আটক করে সাভার মডেল থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *