ইউএনবি:

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলিসা গ্রামে স্বামী-স্ত্রী ও তাদের দুই সন্তানসহ চারজনকে হত্যার ঘটনায় নিহত শাহিনুরের আপন ভাই রায়হানুলকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে সিআইডি পুলিশ।

শুক্রবার দুপুরে তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন জানানো হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডি ইন্সপেক্টর তরিকুল ইসলাম জানান, নিহত শাহিনুরের ভাই রায়হানুলকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে এবং তাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়েছে। তবে, রিমান্ড শুনাইনর দিন এখনও আদালত ধার্য করেনি।

প্রসঙ্গত, কলারোয়া উপজেলার খলসি গ্রামের শাহাজান ডাক্তারের ছেলে হ্যাচারি ব্যবসায়ী শাহিনুর রহমান, তার স্ত্রী সাবিনা খাতুন, ৯ বছর বয়সী ছেলে সিয়াম ও ৬ বছর বয়সী মেয়ে তাসনিমকে দুর্বৃত্তরা বুধবার দিবাগত রাতে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করে। পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে নিহত শাহিনুর রহমানের শাশুড়ি কলারোয়া উপজেলার ওফাপুর গ্রামের রাশেদ গাজির স্ত্রী ময়না খাতুন (৫৫) বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাতদের আসামি করা হয়েছে। মামলাটি তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সিআইডি বিভাগকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে নিহত শাহিনুরের নানার বাড়ি কলারোয়ার ব্রজাবাকসা গ্রামে নিহত চারজনেরই দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

এদিকে নারকীয় হত্যাকাণ্ডের মধ্যে ঘাতকদের হাত থেকে বেঁচে যাওয়া চার মাসের শিশু মারিয়া সুলতানার দায়িত্বভার নিয়েছেন সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল। তিনি ওই শিশুর চিকিৎসা ও বেড়ে ওঠার সব ব্যয়ভার বহন করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। শিশুটি বর্তমানে হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য নাসিমা খাতুনের হেফাজতে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *