অনলাইন ডেস্ক:

বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার মধ্যে ৪০টিই করোনাভাইরাস সংক্রমণের অতি উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে বলে সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এর বাইরে আরও ১৫টি জেলা আছে সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে এবং মধ্যম ঝুঁকিতে রয়েছে ৬টি জেলা।

দেশের করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে গত মঙ্গলবার এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

নতুন রোগী শনাক্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা উভয় বিবেচনায় দেশের করোনা পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এক সপ্তাহের নমুনা পরীক্ষা ও রোগী শনাক্তের হার বিবেচনা করে এই ঝুঁকি চিহ্নিত করেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আশঙ্কা, স্বাস্থ্য বিধি এবং সরকারের দেয়া বিধিনিষেধ না মানলে চলমান করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ পর্যায়ে চলে যেতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী, খুলনা বিভাগের ১০টি জেলাই  সংক্রমণের অতি উচ্চ ঝুঁকিতে আছে।

রাজশাহী বিভাগের আট জেলার মধ্যে ছয়টি অতি উচ্চ ঝুঁকিতে এবং দুটি আছে উচ্চ ঝুঁকিতে।

ঢাকা বিভাগের সাতটি জেলা রয়েছে অতি উচ্চ ঝুঁকিতে। রাজধানী ঢাকাসহ দুটি জেলা আছে উচ্চ ঝুঁকিতে আর চারটি জেলা রয়েছে মধ্যম ঝুঁকিতে।

রংপুর বিভাগের পাঁচটি অতি উচ্চ এবং তিনটি জেলা উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে।

অন্যদিকে,  চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে চট্টগ্রামসহ ছয়টি জেলা অতি উচ্চ, তিনটি জেলা উচ্চ এবং একটি জেলা মধ্যম ঝুঁকিপূর্ণ।

বরিশাল বিভাগে তিনটি জেলা অতি উচ্চ ঝুঁকিতে এবং তিনটি জেলা মধ্যম ঝুঁকিপূর্ণ।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে আরও ৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে যা গত ৫৫ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। গত এক বছরেরও বেশি সময়জুড়ে প্রাণঘাতি এই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা সাড়ে ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে। এ পর্যন্ত দেশে ১৩ হাজার ৭৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে কোভিডজনিত কারণে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *