নিজস্ব প্রতিবেদক :

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কার্গো ভিলেজ থেকে একটি বাক্সে কার্বন দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় ৫৪ লাখ ৭৫ হাজার সৌদি রিয়াল ও ২০ হাজার ২০০ সিঙ্গাপুরি ডলার উদ্ধার করা হয়েছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় মোট ১২ কোটি ৫১ লাখ ৭৫ হাজার ৬৯১ টাকা। ধারণা করা হচ্ছে, বিদেশি মুদ্রা সিঙ্গাপুরে পাচার করা হচ্ছিল। আজ মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) এ তথ্য জানান বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক ক্যাপ্টেন তৌহিদ-উল আহসান।

এর আগে গতকাল সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে পার্সেলটি সিঙ্গাপুর যাওয়ার আগ মুহূর্তে জব্দ করে এভিয়েশন সিকিউরিটির (এভসেক) সদস্যরা। এর ভেতর থেকে সৌদি আরবের ৫০০ রিয়াল ও সিঙ্গাপুরের ১০০ ডলারের বান্ডিল উদ্ধার করা হয়। প্রায় ৯ ঘণ্টা গণনার পর জব্দ করা মুদ্রার বিষয়ে জানায় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক ক্যাপ্টেন তৌহিদ-উল আহসান বলেন, সিঙ্গাপুরগামী একটি কনসাইনম্যান্টের মধ্যে থেকে সৌদি রিয়াল উদ্ধার করা হয়। কনসাইনম্যান্টটি সিঙ্গাপুর কার্গোতে (এসকিউ-৪৪৭) সিঙ্গাপুর যাচ্ছিল। স্ক্যানিংয়ের সময় সন্দেহপূর্বক এটি উদ্ধার করেন এভিয়েশন সিকিউরিটির (অ্যাভসেক) সদস্য গাজী কাইয়ুম। পরে উদ্ধার করা মুদ্রা গুনে ৫৪ লাখ ৭৫ হাজার সৌদি রিয়াল ও ২০ হাজার ২০০ সিঙ্গাপুরের ডলার পাওয়া গেছে। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ১২ কোটি টাকা।

তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত মালামালের ফ্রেইটার হচ্ছে স্টার এক্সপ্রেস লাইন নামে একটি প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানের মো. হাসান আলী নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

উদ্ধার করা মালামালকে ‘রেডিমেড গার্মেন্টস (আরএমজি)’ উল্লেখ করা হয়, যার গায়ে এজেন্টের নাম ‘ইউনাইটড সার্ভিস এজেন্সি ঢাকা বিডি লিমিটেড’ উল্লেখ ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *