অনলাইন ডেস্ক:

জাতিসংঘের ‘বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী’ ( ‘ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম’ বা ডব্লিউএফপি) এ বছর শান্তিতে নোবেল পেয়েছে। শুক্রবার নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি এ ঘোষণা প্রকাশ করে।

ক্ষুধার হুমকির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের স্বীকৃতি হিসেবে ডব্লিউএফপি’কে পুরস্কৃত করা হয়।

‘বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি’ জাতিসংঘের খাদ্য সহায়তা সংক্রান্ত শাখা। ক্ষুধা ও খাদ্য নিরাপত্তার সঙ্গে জড়িত বিশ্বের বৃহত্তম সংস্থা এটি। এর সদর দপ্তর ইতালির রোমে।

সারা বিশ্বে ‘বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি’র ৮০টিরও বেশি শাখা আছে। এগুলোর মাধ্যমে এই সংস্থা এমন সব মানুষকে সাহায্য করে, যারা নিজেদের ও পরিবারের জন্য যথেষ্ট পরিমাণ খাবার উৎপাদন কিংবা আহরণ করতে অক্ষম।

২০১৯ সালে সংস্থাটি ৮৮টি দেশে প্রায় ১০ কোটি মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে।
নোবেল কমিটি এক বার্তায় জানায়, করোনাভাইরাস বাস্তবতায় পৃথিবীর নানা প্রান্তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে সংস্থাটি। বিশেষত ইয়েমেন, ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো, নাইজেরিয়া, দক্ষিণ সুদান ও বুরকিনা ফাসোর মতো দেশগুলোতে সহিংস সংঘাত ও মহামারির যৌথ আক্রমণে অনাহারী মানুষের পাশে বলিষ্ঠভাবে দাঁড়িয়েছে ‘বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি’।

‘যতদিন পর্যন্ত (করোনাভাইরাসের) কোনো মেডিক্যাল ভ্যাকসিন আমরা না পাচ্ছি, ততদিন পর্যন্ত খাদ্যই সেরা ভ্যাকসিন,’ এক বিবৃতিতে বলেছে এ সংস্থা।

সূত্র:-টিবিএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *