জেলা প্রতিনিধি,কুষ্টিয়া:

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারীতে কার্যত স্থবির দেশের অর্থনীতির চাকা। প্রতিনিয়তই আক্রান্ত আর মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলছে। এরপরও অনেকই সময়টিকে কাজে লাগাচ্ছে, সেরে ফেলছেন বিয়ে। আর তাতেই ঘটলো বিপত্তি। শ্বশুরবাড়ি গিয়ে নতুন বউ জানলেন তিনি করোনায় আক্রান্ত।

বর্তমানে নুতন বউ তার বাবার বাড়িতেই আইসোলেশনে আছেন। ২ আগস্ট, রবিবার কুষ্টিয়ার মিরপুর পৌরসভায় এই ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয়রা জানান, রবিবার ওই নারীর বিয়ে হয়। বিয়ে বাড়িতে বরযাত্রীসহ প্রায় দুইশ লোক আমন্ত্রিত ছিলো। সন্ধ্যায় বৌ নিয়ে দৌলতপুর উপজেলায় নিজের বাড়ি যান বর। এরপর রাত সাড়ে ৯টার দিকে নতুন বউকে ফোন করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স জানায়, তিনি করোনা পজিটিভ। রাতে পুলিশ প্রশাসন থেকেও তাকে এই তথ্য জানানো হয়। এছাড়াও মেয়ের মাও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

এ বিষয়ে ওই নববধূ গণমাধ্যমকে বলেন, প্রায় দুই সপ্তাহ আগে তিনি ও তার মা এক অসুস্থ আত্মীয়কে দেখতে যান। পরে জানা যায় ওই ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত। গত সপ্তাহে তার হালকা জ্বর আসে। ওষুধ খেয়ে তিনি সেরে ওঠেন। এর মধ্যেই গতকাল তার বিয়ে হয়ে যায়।

তিনি আরো জানান, তিনি বর্তমানে বাবার বাড়িতে এসে আইসোলেশনে আছেন। তার মাও আলাদা ঘরে আইসোলেশনে আছেন। তাদের বাড়ি লকডাউন করে দিয়েছে প্রশাসন।

এ বিষয়ে মিরপুর উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, গত বুধবার উপজেলা থেকে করোনা পরীক্ষার জন্য ৯ জনের নমুনা পাঠানো হয়। গত রবিবার রাত সাড়ে নয়টায় কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে সেগুলোর পরীক্ষা করা হয়। এরপর তিনজনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে বলে জানানো হয়। এর মধ্যে দুজন হলেন মা ও মেয়ে। তাদের সবাইকে ফোন করে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *