অনলাইন ডেস্ক:


আধ্যাত্মিক গুরু পরিচয়ে লাখ খানেক মানুষের কাছ থেকে শত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন এক প্রতারক। এক যুগ ধরে এমন প্রতারণা করলেও শনাক্ত করতে না পারায় এতদিন ধরা-ছোঁয়ার বাইরে ছিলেন তিনি। অবশেষে তাকে ধরতে সফল গোয়েন্দা পুলিশ। জানান, মানুষকে ধোঁকা দিতে ধর্মেরও আশ্রয় নিতেন তিনি।

বিদেশ থেকে অনুদানের অর্থ আসবে। সামাজিক নানা কাজে খরচ হবে তা। এলাকার যে কোনো অবকাঠামো বা প্রকল্পের ছক এঁকে নিয়ে গেলে মিলবে ওই অর্থ। আপাত দৃষ্টিতে নিষ্কলুষ এমন পরিকল্পনা দিয়েই প্রতারণার জাল বিছিয়েছেন শেরপুরের নুরুল হক ওরফে দাদা ভাই।

এক সময়ের পোশাক কারখানার শ্রমিক নুরুল হক হঠাৎই নিজেকে আধ্যাত্মিক গুরু হিসেবে দাবি করতে থাকেন। যোগাড় করেন ভক্তের। যার এখন দেশজুড়ে কাজ করছে তার এজেন্ট হিসেবে। এরইমধ্যে প্রতারণার জাল বিছাতে শাখা খুলেছেন দেশের ৩৫টি জেলায়।

এক যুগ ধরে প্রায় লাখ খানেক মানুষের কাছ থেকে শত কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন ওই প্রতারক। অবশেষে গোয়েন্দা পুলিশের জালে ধরা পড়েন তিনি।

পুলিশ জানায়, রাজধানীর তুরাগসহ দেশের বিভিন্ন থানায় তার নামে মামলা রয়েছে। তবে তাকে শনাক্ত করতে না পারায় এতদিন তেমন অগ্রগতি ছিল না এই মামলাগুলোর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *