কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের টেকনাফে লেদা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকা থেকে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী ‘সালমান শাহ’ গ্রুপ প্রধান শহীদুল ইসলাম ওরফে  সালমান শাহকে ইয়াবা ও দেশীয় তৈরি অস্ত্রসহ আটক করেছে এপিবিএন।

কক্সবাজারস্থ এপিবিএন (আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন) ১৬ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসপি মো. হেমায়েতুর রহমান জানান,টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন স্থানীয় আবু বক্কর মেম্বারের বাড়ির উত্তর পাশে পাহাড়ি এলাকায় একটি ঝুপড়িতে কিছু সন্ত্রাসী অবস্থান করছে খবরে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ানের (এপিবিএন) একটি দল অভিযান চালায়। এসময় এপিবিএন সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে ৪/৫ জন সন্ত্রাসী পালিয়ে গেলেও একজনকে আটক করতে সক্ষম হয়। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে দেশীয় তৈরি ২ টি রামদা ও ৪ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়।

আটক সালমান শাহ (৩০) টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা সোনা মিয়ার ছেলে। এপিবিএন জানায়, টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পভিত্তিক কয়েকটি সন্ত্রাসী বাহিনী সক্রিয়। এ সব বাহিনী ক্যাম্পে নানা ধরণের অপরাধ সংঘটনে জড়িত। আটক শহিদুল ওরফে সালমান শাহ নিজের নামে গড়া ‘সালমান শাহ বাহিনীর’ প্রধান।

এপিবিএন অধিনায়ক বলেন, ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী বাহিনী সালমান শাহ গ্রুপের প্রধানকে আটক করতে এপিবিএন দীর্ঘদিন চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। অবশেষে আজ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা সম্ভব হয়েছে।

তিনি আরও জানান, টেকনাফে বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প কেন্দ্রিক বেশ কয়েকটি সন্ত্রাসী বাহিনী সক্রিয় রয়েছে। এসব সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্যরা ক্যাম্পে মাদকপাচার, মানবপাচার, ডাকাতি, খুন, অপহরণ ও চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধে জড়িত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *