নিজস্ব প্রতিবেদক,চট্রগ্রাম:

কমলগঞ্জের ছেলে মো. বরকত আলম (৬০) ছিলেন রিকশাচালক। পরে চালিয়েছেন লেগুনা।
চট্রগ্রামের ইয়াবা কারবারীদের সহায়তায় তিনি জড়িয়ে পড়েন ইয়াবা ব্যবসায়।
ইয়াবা ব্যবসা করে আর্থিক অবস্থারও উন্নতি হয় তার। সাত মাস আগে বাসা বদল করে নতুন বাসা নিয়েছেন নয়াবাজার মৌসুমী আবাসিক এলাকায়। সেখানে বসেই বিক্রি করতেন ইয়াবা।

তবে শেষ রক্ষা হয়নি বরকতের। নয়াবাজার মৌসুমী আবাসিক এলাকায় তার বাসায় অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার ৭৭০ পিস ইয়াবাসহ বরকত আলমকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

আটক মো. বরকত আলম মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ থানাধীন পূর্ব কালেঙ্গা এলাকার আকবর আলমের ছেলে।

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. মাশকুর রহমান বলেন, নয়াবাজার মৌসুমী আবাসিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার ৭৭০ পিস ইয়াবাসহ বরকত আলম নামে এক ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। তাকে পাহাড়তলী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

র‌্যাব-৭ এর চান্দগাঁও ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার কাজী মোহাম্মদ তারেক আজিজ বলেন, মো. বরকত আলম আগে রিকশা চালাতেন। পরে লেগুনা চালিয়েছেন। এক পর্যায়ে তিনি ইয়াবা ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন।

তিনি বলেন, কক্সবাজারের উখিয়া এলাকার এক ব্যক্তির কাছ থেকে ইয়াবা এনে চট্টগ্রাম শহরে বিক্রি করেন বরকত। সাত মাস আগে বাসা বদল করে নতুন বাসা নিয়েছেন নয়াবাজার মৌসুমী আবাসিক এলাকায়। সেখানে বসেই ইয়াবা বিক্রি করতেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *