মো.শামীম হোসেন,সাভার: 

সাভারে যৌতুকের টাকা আদায়ে শশুর বাড়ির অমানবিক নির্যাতন সইতে না পেরে এক গৃহবধু আত্মহত্যা করেছেন।

নিহত গৃহবধূটির নাম রাবেয়া আক্তার (১৮) । এঘটনায় নিহতের শাশুড়ি শিল্পী বেগমকে (৩৮) আটক করেছে পুলিশ। নিহত ওই গৃহবধুর মৃত্যুতে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

পুলিশ বলছে, গত এক বছর আগে মোবাইল ফোনে পরিচয়ের মাধ্যমে সাভারের রাজাশন এলাকার রবিউল ইসলামের মেয়ে রাবেয়া আক্তারের সাথে তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের হেমায়েতপুরের জয়নাবাড়ি এলাকার স্বপন মিয়ার ছেলে সোহানুর রহমানের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে ওই গৃহবধুর স্বামী শশুর বাড়ি থেকে দশ লক্ষ টাকা যৌতুক আনার জন্য ওই গৃহবধুকে চাপ দিয়ে মানুষিক ভাবে টর্চার করে আসছিলো।

এসময় ওই গৃহবধু স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে সাভার মডেল থানায় তার স্বামীর নামে দুটি সাধারণ ডায়রিও করে ছিলেন। এর পর গত ৩১ অক্টোবর দুপুরে ওই গৃহবধুকে আবারও যৌতুকের টাকার জন্য মারধর করে তার স্বামী। পরে ওই গৃহবধু ওই দিনেই স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে ভাড়া ঘরে আড়ার সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করে। পরে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।

এর পর রবিবার রাতে সাভার মডেল থানায় যৌতুকের জন্য নির্যাতন আত্মহত্যা ও প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন নিহতের পিতা মো. রবিউল আলম। মামলা নং (৫)।

মামলার আসামিরা হলেন- নিহত গৃহবধূর স্বামী মো. সোহানুর রহমান (২০), নিহতের শাশুড়ি শিল্পী বেগম (৩৮) ও শশুর মো. স্বপন মিয়া (৪৭)। এর মধ্যে নিহতের স্বামী ও শশুর পলাতক থাকলেও পুলিশ শাশুড়ি শিল্পী বেগমকে আটক করেছে।

এদিকে সোমবার দুপুরে স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে ওই গৃহবধুর মৃত্যুর খবর শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফখরুল আলম সমর। এসময় তিনি নিহত ওই গৃহবধুর পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানান ও আত্মহত্যা প্ররোচনাকারীদের কঠোর শাস্তি দাবি করেন।

অন্যদিকে সাভারের আমিনবাজার এলাকায় পাওনা টাকা চাওয়ায় মর্জিনা নামের এক (৩৫) এক নারীকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনার সোমবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালে। গত ৩১ অক্টোবর রাতে তাকে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে আহত করেছিলো আমিনবাজার এলাকায়।

এদিকে সোমবার দুপুরে সাভারের বনপুকুর এলাকায় একটি বাড়ি থেকে এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এবিষয়ে সাভার মডেল থানার ওসি তদন্ত সাইফুল ইসলাম বলেন, এ মামলার সকল আসামীদের গ্রেপ্তারে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *