জেলা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম:
কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে দুই বান্ধবী। ঘটনার তিনদিন পর থানায় অভিযোগ দিয়েছে নির্যাতিত দুই কিশোরীর পরিবার।

দুই কিশোরী এখন থানা হেফাজতে আছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার (১০ আগস্ট) দুপুরে কচাকাটা থানার বল্লভের খাস ইউনিয়নের চর কৃষ্ণপুর গ্রামে। ধর্ষণের শিকার দুই কিশোরীর একজন স্থানীয় নুরানি মাদরাসার পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী এবং অপরজন একই মাদরাসার সাবেক শিক্ষার্থী।

দুই কিশোরীর বাবার অভিযোগ, গত সোমবার সকালে একসঙ্গে দুই বান্ধবী গ্রামের শেষ প্রান্তে একজন (১৫) নানার বাড়ি এবং অপরজন (১৪) ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে যায়। গ্রামটি চরাঞ্চল হওয়ায় সড়ক পথ না থাকায় ক্ষেতের আইল দিয়ে যেতে হয় তাদের। দুপুরে ফেরার পথে পাটক্ষেতের মাঝামাঝি এলে বল্লভের খাস ইউনিয়নের সদস্য (মেম্বার) জসমতের ছেলে খোকার (২১) নেতৃত্বে একই গ্রামের মজিবরের ছেলে কাঠমিস্ত্রি আল-আমিন (২৪) দুই কিশোরীকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি মীমাংসার জন্য দুইদিন ধরে স্থানীয় মাতব্বরদের দেন-দরবার চলে। উপায় না পেয়ে গতকাল বুধবার এক কিশোরী এবং বৃহস্পতিবার দুপুরে অপর কিশোরীর পরিবার কচাকাটা থানায় অভিযোগ দেয়।

কচাকাটা থানা পুলিশের ওসি মামুন অর রশিদ বলেন, দুই কিশোরীর ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এখানে প্রেমঘটিত বিষয় থাকতে পারে। ভিকটিমদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বলেন, প্রাথমিক তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ধরনের অপরাধে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *