মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:

জেলার গজারিয়া উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ই পক্ষের সংঘর্ষে পাঁচজন গুলিবিদ্ধসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ দুই পক্ষের চারজনকে আটক করেছে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নের ষোলআনি গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- আহসান বেপারী (৪২), শহীদ বেপারী (৪৫), জাহিদ হাসান ওরফে রুকু দেওয়ান (২৪), শাহপরান (২৩) ও আবু তাহের (২৫)। এর সবাই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ৭ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য শাহ আলম ও রায়হান গ্রুপের সঙ্গে ষোলআনি গ্রামের সবুজ দেওয়ানে গ্রুপের লোকজনের বিরোধ চলছিল। এই দুই পক্ষের মধ্যে একাধিকবার সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।

হামলা-মামলার ভয়ে শাহ আলম, রায়হান গ্রুপের লোকজন প্রায় এক মাস গ্রাম ছাড়া ছিল। সকালে তারা এলাকায় ফিরে নিজেদের শক্তি প্রদর্শনের জন্য সজিব দেওয়ান গ্রুপের ওপর হামলা চালিয়ে অর্ধশত ঘরবাড়ি ভাঙচুর ও তিনটি ককটেলের বিস্ফোরণ করে।

এ সময় সজিব দেওয়ান গ্রুপের লোকজন তাদের প্রতিহত করতে চাইলে প্রায় কয়েক রাউন্ডের মতো গুলি চালায়। এতে সবুজ দেওয়ান গ্রুপের পাঁচজন গুলিবিদ্ধ হন।

গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন-অর-রশিদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া নয়টি ককটেল ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *