ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

মায়ের পরকিয়া জেনে ফেলায় ১৫ বছরের কিশোর ছেলে পারভেজ মোশাররফকে ভাড়াটে খুনি দিয়ে হত্যার অভিযোগে নিহতের মা রোজিনাসহ ৫জনকে আটক করেছে র‌্যাব-১৪।

ঘটনাটি ঘটে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর উত্তরপাড়ায়। নিহত পারভেজ মোশারফ মরিচারচর উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। তার বাবা একজন প্রবাসী।

গ্রেফতারকৃতরা হল- মরিচারচর উত্তরপাড়া এলাকার এমদাদুল হক (৩৮), নিহত পারভেজের মা রোজিনা আক্তার (৩০), মো. গণি মিয়া (৪৫), সুলতান উদ্দিন (৪০) ও রুহুল আমিন (৫৮)।

আজ বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) ময়মনসিংহ র‍্যাব-১৪-এর কার্যালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

গত রোববার মরিচারচর ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে স্কুলছাত্র পারভেজের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় পরদিন সোমবার নিহত পারভেজের বাবা মঞ্জুর মিয়া বাদী হয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। বুধবার মধ্যরাতে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে নিহতের মাসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।

ময়মনসিংহ র‍্যাব-১৪-এর মিডিয়া অফিসার ও সহকারী পুলিশ সুপার জোনাঈদ আফ্রাদ বলেন, গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন পারভেজের মা রোজিনা আক্তারের সঙ্গে একই গ্রামের এমদাদুল হকের পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল।

মায়ের পরকীয়ার বিষয়টি জেনে যাওয়ায় রোজিনা ও তার পরকীয়া প্রেমিক এমদাদুল হক মোশাররফকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনা অনুযায়ী গণি মিয়া, সুলতান উদ্দিন ও রুহুল আমিনকে টাকার বিনিময়ে ভাড়া করেন। এরপর মোশাররফকে হত্যা করে মরদেহ ব্রহ্মপুত্র নদে ফেলে দেন ভাড়াটে খুনিরা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *