নিজস্ব প্রতিবেদক,সিলেট:

ভাসানচরের রোহিঙ্গাদের জন্য উপহার সামগ্রী পাঠিয়েছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন।

শুক্রবার সিলেট মহানগরীর দরগা গেট এলাকায় হোটেল স্টার প্যাসিফিকে ‘উন্নয়ন অগ্রযাত্রা’শিরোনামে সিলেটের উন্নয়ন বিষয়ক মতবিনিময় সভায় তিনি বলেন সিঙ্গাপুরের ফার্স্ট জেন্টেলম্যান মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আল হাবশি এ উপহার পাঠিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে ড. মোমেন বলেন, রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে নেওয়ার পর সিঙ্গাপুর তাদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে। আজ ভাসানচরে আরও ৩ হাজার রোহিঙ্গা যাবে এবং এক লাখ সেখানে নেওয়া হবে। রোহিঙ্গাদের মঙ্গলের জন্য তাদের ভাসানচরে নেওয়া হবে।

এসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সিলেটের সব নদীর পাড় অন্য দেশের মতো দৃষ্টিনন্দন হবে। এ রিংরোড হলে এ শহরের যানজট কমে যাবে। সিলেটে দৃষ্টিনন্দন স্বাধীনতা টাওয়ার নির্মাণ করা হবে। শেখ হাসিনার সরকার আছে বলে সারাদেশে অভাবনীয় সাফল্য দেখছি।

ড. মোমেন মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সিলেট একটি বিশেষ কর্মসূচির প্রত্যাশা করেন। তিনি আরো বলেন, উন্নয়নের মহাসড়কের জন্য ধন্যবাদ দিতে হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে।

এসময় সিলেট সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম ও উন্নয়ন পরিকল্পনার তথ্যচিত্র ও ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করা হয়। সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। এছাড়া সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমেদ ও স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বক্তৃতা দেন।

এর আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী যৌথভাবে সিলেট জেলা পরিষদ সুপার মার্কেট উদ্বোধন করেন। এসময় সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া উভয় মন্ত্রী সিলেটের কদমতলী কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালসহ স্থানীয় সরকারের কয়েকটি উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *