আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বাংলাদেশ থেকে পাচার হওয়া এক তরুণীকে বিবস্ত্র করে যৌন নির্যাতনের ভিডিও ভাইরালের ঘটনায় ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরুতে পাঁচজনকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। আটক যুবকদের সবাই বাংলাদেশি বলেও ধারণা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যম।

এনডিটিভির খবরে জানানো হয়েছে, নির্যাতিত তরুণীকেও পাওয়া গেছে। তাঁকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে ঘটনা সম্পর্কে তার জবানবন্দি নেওয়া হবে। ভারতীয় পুলিশ বলছে, বাংলাদেশি ওই তরুণীকে চাকরির কথা বলে পাচার করে বেঙ্গালুরুতে নিয়ে গিয়ে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করা হয়।

আটক পাঁচজনের মধ্যে চারজন হলেন- সাগর, মোহাম্মদ বাবা শেখ, হৃদয় বাবু ও হাকিল। আটক নারীর নাম জানানো হয়নি। এদের মধ্যে হৃদয় বাবু ঢাকার মগবাজারের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

<blockquote class=”twitter-tweet”><p lang=”en” dir=”ltr”>Based on the contents of the video and preliminary investigation, a case of rape and assault has been registered against 6 persons including 2 women at <a href=”https://twitter.com/ramamurthyngrps?ref_src=twsrc%5Etfw“>@ramamurthyngrps</a>.<br><br>A police team has also been deputed to an adjoining state to trace the victim so that she could join.. (1/3)</p>&mdash; Kamal Pant, IPS (@CPBlr) <a href=”https://twitter.com/CPBlr/status/1397967395440893953?ref_src=twsrc%5Etfw“>May 27, 2021</a></blockquote> <script async src=”https://platform.twitter.com/widgets.js” charset=”utf-8″></script>

বেঙ্গালুরু পুলিশ কমিশনার কমল পন্ত তাঁর ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্টে বলেছেন, ‘প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ধর্ষকদলের সবাই একই গোষ্ঠীর এবং এরা সবাই বাংলাদেশ থেকে আসা বলে ধারণা করা হচ্ছে। অর্থসংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে ভুক্তভোগীকে বাংলাদেশ থেকে পাচার করে আনা হয় এবং ধর্ষণ নির্যাতন করা হয়।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *