কূটনৈতিক প্রতিবেদক:
বাংলাদেশ সরকার ও জাপান সরকারের মধ্যে ‘কোভিড-১৯ ক্রাইসিস রেসপন্স এমারজেন্সি সাপোর্ট লোন’-এর জন্য বিনিময় নোট ও ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

গতকাল বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলানগরে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সম্মেলনকক্ষে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। জাপানি রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকির সঙ্গে বিনিময় নোট এবং বাংলাদেশে জাইকা অফিসের চিফ রিপ্রেজেন্টেটিভ ইউহো হায়াকাওয়ার সঙ্গে ঋণচুক্তিতে স্বাক্ষর করেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন।

‘কোভিড-১৯ ক্রাইসিস রেসপন্স এমারজেন্সি সাপোর্ট লোন’-এর আওতায় জাপান সরকার ৩৫ হাজার মিলিয়ন জাপানিজ ইয়েন (আনুমানিক ৩২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার) ঋণ সহায়তা প্রদান করবে। এর উদ্দেশ্য হলো- করোনা মহামারীর কারণে বাংলাদেশের সম্ভাব্য অর্থনৈতিক মন্দা উত্তরণে বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত আর্থিক প্রণোদনা কার্যক্রম বাস্তবায়নে বাজেট সাপোর্ট প্রদান করা।

এই ঋণের বার্ষিক সুদের হার শূন্য দশমিক শূন্য ১ শতাংশ, যা ৪ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ১৫ বছরে পরিশোধযোগ্য। এ ঋণের মাধ্যমে জাপান সরকার প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সরকারকে বাজেট সহায়তা প্রদান করছে।

স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত জাপান সরকার বাংলাদেশের আথর্-সামাজিক অবস্থার উন্নয়নে বিভিন্ন সেক্টরে উল্লেখযোগ্য সহায়তা প্রদান করেছে। দ্বিপক্ষীয় পর্যায়ে জাপান বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্নয়ন সহযোগী দেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *