সিএনএস ডেস্ক:
সাম্প্রতিক অতিবর্ষণে সৃষ্ট বন্যায় ৩৩ টি জেলায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে মানবিক সহায়তা হিসেবে এ পর্যন্ত ১৯ হাজার ৫১০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে । আর বন্যার্তদের মাঝে এ পর্যন্ত ১১ হাজার ৭৫০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে । আজ এক সরকারি তথ্যবিবরণীতে একথা বলা হয়।

বন্যাকবলিত জেলা প্রশাসনসমূহ থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বরাদ্দ দেয়া হয়েছে চার কোটি ২৭ লাখ টাকা এবং বিতরণ করা হয়েছে দুই কোটি ৭৮ লাখ।

শিশু খাদ্য সহায়ক হিসেবে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এক কোটি ৫৪ লাখ টাকা এবং এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ৯১ লাখ ১৩ হাজার টাকা।

গো খাদ্য ক্রয়ের জন্য তিন কোটি ৩০ লাখ টাকা এবং বিতরণের পরিমাণ এক কোটি ৭৮ লাখ টাকা। শুকনো ও অন্যান্য খাবারের প্যাকেট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এক লাখ ৬৮ হাজার এবং বিতরণ করা হয়েছে এক লাখ ৩৭ হাজার ৩৩৬ প্যাকেট।

ছাড়াও ঢেউটিন বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ৪০০ বান্ডিল এবং বিতরণ করা হয়েছে ১০০ বান্ডিল। গৃহ মঞ্জুরি বাবদ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১২ লাখ টাকা এবং বিতরণ করা হয়েছে তিন লাখ টাকা।

বন্যাকবলিত জেলাসমূহ হচ্ছে- ঢাকা, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, মানিকগঞ্জ, ফরিদপুর, মুন্সিগঞ্জ, রাজবাড়ী, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, জামালপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, পাবনা, রংপুর, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ এবং সুনামগঞ্জ।

সরকারি তথ্যবিবরণীতে বলা হয়, বন্যাকবলিত উপজেলা ১৬৫ টি এবং ইউনিয়ন এক হাজার ৮৬ টি। পানিবন্দি পরিবার ০৯ লাখ ৭৪ হাজার ৩১৩ টি এবং ক্ষতিগ্রস্ত ৫৪ লাখ ৫১ হাজার ৫৮৬ জন। বন্যায় মৃতের সংখ্যা ৪১ জন।

এতে আরো বলা হয়, বন্যাকবলিত জেলা সমূহে আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে এক হাজার ২৯৫ টি যেখানে আশ্রয় নিয়েছেন ৪০ হাজার ৩৬০ জন। আশ্রয় কেন্দ্রে আনা গবাদি পশুর সংখ্যা ৬৭ হাজার ৪০টি।
বন্যাকবলিত জেলাসমূহে মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে ৮২৪ টি যার মধ্যে চালু আছে ২৫৮ টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *