জেলা প্রতিনিধি,কুড়িগ্রাম:
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো: জাকির হোসেন বলেছেন, বন্যা প্লাবিত চরাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যোন্নয়ন এবং নদী ভাঙন ও ভয়াবহ বন্যার হাত থেকে তাদের রক্ষা করে স্থায়ী সমাধানের জন্য ব্রম্মপুত্র নদ খনন করে বাঁধ নির্মাণ করা হবে।তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ব্রম্মপুত্র নদের শাখা নদীগুলোর মুখ বন্ধ করার কাজ শুরু হয়েছে।

আজ কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার নদী খনন, নদী ভাঙন ও বাঁধ নির্মাণ কাজ পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।
গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেন, রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঝুঁকিপূর্ণ এবং নদী ভাঙন এলাকা।এ এলাকাটি সীমান্তবর্তী হওয়ায় প্রতিবছরই বর্ষা মৌসুমে ব্রম্মপুত্র নদের পানি উপচে পড়ে নিম্ম চরাঞ্চল বন্যা প্লাবিত হয় এবং অসহায় দরিদ্র মানুষ দুর্ভোগে পতিত হয়। এ সকল বন্যা প্লাবিত চরাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যোন্নয়ন এবং নদী ভাঙন ও ভয়াবহ বন্যার হাত থেকে স্থায়ী সমাধানের জন্য ব্রম্মপুত্র নদ খনন করে বাঁধ নির্মাণ করা হবে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ব্রম্মপুত্র নদ খনন কাজের প্রকল্প ইতোমধ্যে একনেকে পাশ হয়েছে এবং টেন্ডারের অপেক্ষায় রয়েছে। তাই এলাকার সাধারণ জনগণের দুর্ভোগ আর বেশী দিন থাকবেনা। অচিরেই তাদের কষ্ট লাঘব হয়ে যাবে।

পরিদর্শন কালে প্রতিমন্ত্রীর সাথে ছিলেন পিআইডব্লিউটি-এর মহাপ্রকৌশলী সাইদুর রহমান, পানি সম্পদের কুড়িগ্রাম নির্বাহী প্রকৌশলী শাহাবুল ইসলাম, রৌমারী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের কমান্ডার আব্দুল কাদের এবং রৌমারী প্রেসক্লাব সভাপতি সুজাউল ইসলামসহ উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *