আন্তর্জাতিক ডেস্ক:


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বহুল আলোচিত প্রথম মুখোমুখি বৈঠকটি শেষ হয়েছে। সুইজারল্যান্ডের জেনেভার ভিলা লা গ্রেঞ্জে স্থানীয় সময় বুধবার এ দুই নেতার মুখোমুখি বৈঠকটির দৈর্ঘ্য ছিল চার ঘণ্টার কিছু কম।বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, বৈঠকের পর বাইডেন ও পুতিন অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, সাইবার হামলা থেকে শুরু করে নির্বাচনে হস্তক্ষেপ ও ইউক্রেন বিষয়ে মতবিরোধ থাকা সত্ত্বেও তাঁরা আরও স্থিতিশীল এবং প্রত্যাশিত সম্পর্ক বজায় রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

এর আগে এদিন দুপুরে জেনেভার ভিলা লা গ্রেঞ্জের সামনে জো বাইডেন ও ভ্লাদিমির পুতিন হাত মেলানোর মধ্য দিয়ে তাঁদের প্রথম মুখোমুখি বৈঠকের সূচনা করেন।

বৈঠকের জন্য ভিলার ভেতরে ঢোকার আগে পুতিন ও বাইডেন একে অপরের সঙ্গে কিছু কথা বলেন। তবে বৈঠকে তাঁরা কোনও চুক্তিতে উপনীত হয়েছেন কিনা সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি। বৈঠক শেষে দুই নেতা কোনও যৌথ ব্রিফিংও করেননি।

এদিকে মার্কিন কর্মকর্তারাও এ বৈঠক থেকে উল্লেখযোগ্য কোনও অগ্রগতি আশা করছেন না। তবে ছোটখাট কিছু বিষয়ে সমঝোতা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

বাইডেনের পাশে বসে পুতিন বলেছেন, ‘প্রেসিডেন্ট, আজ আপনার এই বৈঠকের উদ্যোগের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার সম্পর্কের মধ্যে অনেক বিষয়ই জমে আছে যেগুলোর জন্য সর্বোচ্চ পর্যায়ে বৈঠকের প্রয়োজন।’

অন্যদিকে বাইডেন বলেছেন, তাঁরা একে অপরের সঙ্গে সহযোগিতার ক্ষেত্র ও পারস্পরিক স্বার্থের বিষয়গুলো নির্ধারণ করার চেষ্টা করবেন। মুখোমুখি বৈঠক করাটা সবসময়ই ভালো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *