অনলাইন ডেস্ক:
কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলে একটি সোনার খনি ধসে পড়ে কমপক্ষে ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা করছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। ভারি বৃষ্টিপাতের পর দক্ষিণ কিভু প্রদেশের কামিতুগা শহরের অস্থায়ী খনিটি শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা তিনটায় ধসে পড়ে। নিহতদের বেশির ভাগই তরুণ।

জানা যায়, গত কয়েকদিন থেকে ওই এলাকায় প্রবল বৃষ্টিপাত হচ্ছে। যার জেরে এই বিপর্যয় বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে।
কামিতুগার মেয়র অ্যালেক্সজান্দ্রে বুন্দিয়া জানিয়েছেন, সেখানকার স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকাল ৩টা নাগাদ হঠাৎ দেওয়াল ভেঙে খনিতে পানি ঢুকতে শুরু করে। খনিতে কর্মরত শ্রমিক ও পরিবহনকর্মীরা পানির তোড়ে ভেসে যান বলে জানিয়েছেন তিনি।
কামিতুগার মেয়র আরও জানিয়েছেন, উদ্ধারকাজের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিয়ে উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন। পাম্পের মাধ্যমে দুর্ঘটনাগ্রস্ত খনিগুলো থেকে পানি ছেঁচে বের করার কাজ চলছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ধসে পড়া খনি তিনটি ৫০ মিটার গভীর। দুর্ঘটনার সময় অন্তত ৫০ জন সেখানে কাজ করছিলেন। মাটির স্তূপের তলায় নিহতদের অধিকাংশই চাপা পড়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *