সিএনএস ডেস্ক:
অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যাকাণ্ড নিয়ে নানা উসকানিমূলক বক্তব্য ছড়িয়ে এই বাহিনীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নের প্রয়াস চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ অ্যাসোসিয়েশন। সোমবার পুলিশের নন ক্যাডার কর্মকর্তা ও সদস্যদের এই সংগঠনটি এক বিবৃতিতে এই বক্তব্য দেয়।

পুলিশ অ্যাসোসিয়েশনের বিবৃতিতে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহার নিহত হওয়ার ঘটনাটিকে ‘অনাকাঙ্ক্ষিত, অপ্রত্যাশিত এবং অনভিপ্রেত’ উল্লেখ করা হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, কিছু কিছু স্বার্থান্বেষী মহল, ব্যাক্তি বা সংগঠন জনগণের কাছে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীকে বিতর্কিত ও অগ্রহণযোগ্য করার জন্য বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যম, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় উল্লেখিত ঘটনার বিষয়ে বিভিন্ন উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখছেন। এই অপপ্রচার চলমান বিচারিক ও প্রশাসনিক অনুসন্ধান প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করতে পারে, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সেনাবাহিনী ও পুলিশ বাহিনীর মধ্যে সুদীর্ঘকাল পারস্পারিক আস্থা ও বিশ্বাসের সম্পর্ক বিদ্যমান। সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নিহত হওয়ার অনভিপ্রেত ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটির তদন্ত চলাকালীন নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়।

আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যগণ দ্রুততম সময়ের মধ্যে আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। কোনো ব্যক্তির দায় বাহিনী নেবে না বলেও উল্লেখ করা হয় বিবৃতিতে।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডিএমপির যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক বিমানবন্দর থানার ওসি ফরমান আলী স্বাক্ষরিত এই বিবৃতিতে কক্সবাজারে সেনা ও পুলিশের যৌথ টহলের উদ্যোগ গ্রহণ করায় সেনা ও পুলিশপ্রধানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *