নিজস্ব প্রতিবেদক:


পরীমনি ও প্রযোজক রাজের বিরুদ্ধে একাধিক মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। আজই পরীমনি ও রাজকে আদালত নেয়া হবে । বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) সকাল থেকে র‍্যাব সদর দপ্তরে পরীমনিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

র‍্যাব জানায়, পরীমনিকে আটকের সময় তার বনানীর বাসা থেকে অন্তত তিন ধরনের মাদক জব্দ করা হয়েছে। আর বনানী থেকে আটক রাজের বাসা থেকে জব্দ করা হয়েছে মাদক ও যৌনাচারের সরঞ্জামাদি। এ ছাড়া তাঁদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনেও মামলা হতে পারে।

বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেলে বনানী বাসা থেকে পরীমনিকে আটক করে র‍্যাপিড একশন ব্যাটেলিয়ন-র‍্যাব। আটকের সময় তার বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক সামগ্রী উদ্ধার করার করা হয়। পরে তাকে নেয়া হয় র‍্যাব সদর দপ্তরে। রাতভর তাকে সেখানেই থাকতে হয়।

র‍্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মেজর রইসুল আজম মনি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন ‘সুনির্দিষ্ট অভিযোগের’ ভিত্তিতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালানো হয় এবং তাকে আটক করা হয়।

এরপরই পরীমনির দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বনানীর বাসা থেকে আটক করা হয় চলচ্চিত্র প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজকে। তার বাসায় থেকেও মাদক, যৌন উত্তেজক ওষুধ উদ্ধারের দাবি করে র‍্যাব।

আইনশৃংখলা বাহিনীর প্রাথমিক ধারণা অস্ত্র এবং মাদক ব্যবসায়ও সাথে জড়িত এই প্রযোজক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *