নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট:

পুলিশি নির্যাতনে নিহত রায়হানের মা সালমা বেগম আমরণ অনশনে বসেছেন নগরীর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির সামনের রাস্তায়। তার সঙ্গে যোগ দিয়েছেন রায়হানের নানি, মামা, খালাতো ভাইসহ অন্যান্য স্বজনরা।

রায়হান হত্যায় জড়িত সব পুলিশ সদস্যের ফাঁসির দাবিতে আজ সকাল ১১টা থেকে এ অনশন কর্মসূচি শুরু করেন তারা।

রায়হানের মা বলেন, ‘যারা পুলিশ হেফাজতে রয়েছে তাদেরকে কেন এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না? তাদেরকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নিলে এ ঘটনায় জড়িত সবার নাম বেরিয়ে আসবে। এই ফাঁড়ির ইনচার্জ আকবরকেও দ্রুত গ্রেপ্তার করতে হবে। সব দোষীরা গ্রেপ্তার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের কর্মসূচি চলবে। আমার ছেলেকে যেখানে হত্যা করা হয়েছে, প্রয়োজনে আমিও সেখানে মারা যাব।’

প্রসঙ্গত; গত ১১ অক্টোবর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনের শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করেন নগরীর আখালিয়া নেহারিপাড়া এলাকার বাসিন্দা রায়হান আহমদ (৩৩)। এ ঘটনার পরদিন নিহতের স্ত্রী মামলা দায়ের করলে ওই ফাঁড়ির ইনচার্জ আকবর হোসেনসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্ত এবং আরও তিন জনকে প্রত্যাহার করা হয়।

এদের মধ্যে কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাস এবং হারুনুর রশীদকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তবে মূল সন্দেহভাজন আকবরকে এখনো আটক করতে পারেনি পুলিশ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *