আন্তর্জাতিক ডেস্ক:


বিশ্বজুড়ে মহামারি করোনাভাইরাসের উচ্চ ঝুঁকিতে আছেন ধূমপায়ীরা। কারণ, ধূমপান প্রাণঘাতী এই রোগে আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঝুঁকি অন্তত ৫০ শতাংশ বাড়িয়ে দেয়। ‘কমিট টু কুইট’ তামাক বিরোধী প্রচারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস আধানম গেব্রিয়েসুস এক টু্ইটবার্তায় এই তথ্য জানিয়েছেন।

টেড্রস আধানম গেব্রিয়েসুস টুইটে বলেন, বর্তমান করোনা মহামারিতে ধূমপায়ীরা উচ্চ ঝুঁকিতে আছেন। আমাদের গবেষণা, ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে এ রোগে আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঝুঁকি অন্তত ৫০ শতাংশ বেশি। ধূমপান শুধু করোনায় আক্রান্তের সম্ভাবনাই বাড়ায় না, বরং আক্রান্ত ব্যাক্তির কোনো শারীরিক সমস্যা বা জটিলতা থাকলে সেটিও বাড়িয়ে তোলে। ফলে আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু ঝুঁকি বেড়ে যায় কয়েকগুণ। এ কারণে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতে হলে ধূমপান ত্যাগের কোনো বিকল্প নেই।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উদ্যোগে প্রতিবছর ৩১ মে বিশ্বজুড়ে ধূমপান ও তামাকবিরোধী দিবস পালন করা হয়। তামাকমুক্ত পৃথিবী গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে ১৯৮৭ সাল থেকে এই দিবসটি পালন করে আসছে ডব্লিউএইচও।

ধূমপান স্বাস্থ্যের কতটা ক্ষতি করে সেই বার্তা মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্যও আহ্বান জানিয়েছেন ডব্লিউএইচও প্রধান। প্রয়োজনে হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ভাইবার, উইচ্যাট-এর মতো নেটমাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে সতর্কতার বার্তা ছড়িয়ে দিতে সচেষ্ট হতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *