রাজবাড়ী প্রতিনিধি :

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফোরিঘাটের দৌলতদিয়া প্রান্তে প্রায় ৭ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের তৈরি হয়েছে। এ কারণে ভোগান্তিতে পড়েছে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রীরা।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) সকালে সরেজমিনে গিয়ে এই চিত্র দেখা যায়। ঘাটের ড্রেজিং কাজ চালু থাকায় এমন যানজটের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে ঘাট কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) সকাল থেকেই ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া ঘাট এলাকার প্রায় ৭ কিলোমিটার অংশ জুড়ে যাত্রীবাহী বাস, কাচা পণবাহী ট্রাক এবং কাভার্ডভ্যানসহ ব্যক্তিগত গাড়ীর জট রয়েছে। এই কারণে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রীরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন।

খুলনা থেকে আগত সোহাগ পরিবহনের ড্রাইভার কালাম মিয়া বলেন, বুধবার (৬ অক্টোবর) রাতে ঘাট এলাকায় আসলেও ফেরিতে উঠতি পারি নাই। জ্যামে আটকে আছি। আর এখানে হোটেল, বাথরুম না থাকায় আমাদের ভোগান্তি হচ্ছে।

যশোর থেকে কাচা পণ্য নিয়ে আসা ট্রাক-চালক মোসলেম উদ্দিন বলেন, বুধবার (৬ অক্টোবর) রাত ১টার সময় ফেরিঘাটে আসলেও এখনো ফেরিতে উঠতে পারি নাই। এই গরমে কাচা পণ্য নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। খুব ভয়ে আছি জ্যাম নিয়ে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডাব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক মো. শিহাব উদ্দিন (বাণিজ্য) জানান, ঘাটের ড্রেজিং কাজ চলার কারণে যানবাহন পারাপারে একটু সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। তবে সেটি নিরসনের জন্য কাজ করা হচ্ছে। এখন ২০টি ফেরির চলাচল করছে। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বাস ও কাঁচা-পণ্যবাহী ট্রাক পারাপার করা হচ্ছে। আশা করা হচ্ছে দ্রুত সময়ে এই যানজট কেটে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *