সিএনএস ডেস্ক:

দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের ৩৩৩তম দিনে ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে আরও ১৩ জনের।মৃতদের মাঝে ৮জন পুরুষ ৫জন নারী। এই সময়ে দেশব্যাপী সুস্থ হয়েছেন ৬১১ জন।

গতকালও মৃত্যুবরণ করেছেন ১৩ জন।

এখন পর্যন্ত দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ৮ হাজার ১৭৫ জন। করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫২ শতাংশ। গত ৩০ জানুয়ারি থেকে মৃত্যুর একই হার বিদ্যমান রয়েছে।

আজ স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘন্টায় ১৫ হাজার ২৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪৮৫ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গতকাল ১৪ হাজার ৯৮৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছিলেন ৪৩৮ জন।
গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩ দশমিক ১৮ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ২ দশমিক ৯২ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ শনাক্তের হার দশমিক ২৬ শতাংশ বেশি।
স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, দেশে এ পর্যন্ত মোট ৩৭ লাখ ৮ হাজার ৯০৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫ লাখ ৩৭ হাজার ৩০ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। অদ্যাবধি পরীক্ষার ২৮ লাখ ৯১ হাজার ৪২৬টি হয়েছে সরকারি এবং ৮ লাখ ১৭ হাজার ৪৮১টি হয়েছে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। মোট পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৪৮ শতাংশ। গতকাল পর্যন্ত এই হার ছিল ১৪ দশমিক ৫৩ শতাংশ।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতাল এবং বাসায় মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৬১১ জন। দেশে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৮১ হাজার ৯১৭ জন।
আজ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৭৪ শতাংশ। গতকাল সুস্থতার হার ছিল ৮৯ দশমিক ৭০ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ দশমিক ০৪ শতাংশ বেশি।
বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, করোনাভাইরাস শনাক্ত করার জন্য গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৫ হাজার ৩৭২ জনের। আগের দিন সংগ্রহ করা হয়েছিল ১৫ হাজার ১৪৭ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ২২৫টি নমুনা বেশি সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের সরকারি ১৩৯টি ও বেসরকারি ৬৭টিসহ ২০৬টি পরীক্ষাগারে (এন্টিজেন টেস্টসহ) নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৫ হাজার ২৭৩ জনের। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ১৪ হাজার ৯৮৫ জনের। গত ২৪ ঘন্টায় আগের দিনের চেয়ে ২৮৮টি বেশি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *