নিজস্ব প্রতিবেদক:

সারাদেশে তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ৬৪টি পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মেয়রপ্রার্থী চূড়ান্ত করেছে ক্ষমতাসীন দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

গতকাল বিকেলে দলটির স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় আট বিভাগে মোট ৬৪ জনকে দলের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় দলের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভা। এ সময় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ উপস্থিত মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা প্রার্থী বাছাইয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেন।

উক্ত সভা থেকে রংপুর বিভাগে ৪টি পৌরসভা, রাজশাহী বিভাগে ১২টি, খুলনা বিভাগে ৯টি, বরিশালে ৮টি, ঢাকা বিভাগে ১২টি, ময়মনসিংহে ৮টি, সিলেটে ৩টি এবং চট্টগ্রামে ৮টি পৌরসভায় মেয়রপ্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে।

পৌরসভার মেয়র পদে নৌকা প্রতীকে যারা পেলেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন:-

কুড়িগ্রামের উলিপুরে মামুন সরকার, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে খন্দকার মো. জাহাঙ্গীর আলম, বগুড়ার ধুনটে টিআইএম নুরুন্নবী, শিবগঞ্জে তৌহিদুর রহমান মানিক, গাবতলীতে মোমিনুল হক (শিলু), কাহালুতে হেলাল উদ্দিন কবিরাজ ও নন্দীগ্রামে আনিছুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুরে গোলাম রাব্বানী বিশ্বাস,দিনাজপুরের হাকিমপুরে এনএএম জামিল হোসেন চলন্ত, নীলফামারীর জলঢাকায় মো. মোহসীন,নওগাঁর ধামইরহাটে আমিনুর রহমান, নওগাঁ পৌরসভায় নির্মল কৃষ্ণ সাহা, রাজশাহীর মুন্ডুমালায় আমির হোসেন (আমিন) ও কেশরহাটে শহিদুজ্জামান, নাটোরের সিংড়ায় জান্নাতুল ফেরদৌস, পাবনা পৌরসভায় আলী মুর্তজা বিশ্বাস, চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় মতিয়ার রহমান, ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুতে ফারুক হোসেন ও কোটচাঁদপুরে শাহাজান আলী, যশোরের মনিরামপুরে কাজী মাহমুদুল হাসান, নড়াইল পৌরসভায় আঞ্জুমান আরা ও কালিয়ায় ওয়াহিদুজ্জামান (হীরা), বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে এসএম মনিরুল হক, খুলনার পাইকগাছায় সেলিম জাহাঙ্গীর, সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মনিরুজ্জামান, বরগুনা পৌরসভায় কামরুল আহসান (মহারাজ) ও পাথরঘাটায় আনোয়ার হোসেন আকন, ভোলার বোরহানউদ্দিনে রফিকুল ইসলাম ও দৌলতখানে জাকির হোসেন, বরিশালের গৌরনদীতে হারিছুর রহমান ও মেহেন্দিগঞ্জে কামাল উদ্দিন খান, ঝালকাঠির নলছিটিতে আ. ওয়াহেদ খাঁন, পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীতে গোলাম কবির, টাঙ্গাইল পৌরসভায় এসএম সিরাজুল হক, মির্জাপুরে সালমা আক্তার, ভূঞাপুরে মাসুদুল হক মাসুদ, সখিপুরে আবু হানিফ আজাদ ও মধুপুরে সিদ্দিক হোসেন খান, কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে শওকত উসমান, মুন্সিগঞ্জ পৌরসভায় মোহাম্মদ ফয়সাল, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, রাজবাড়ীর পাংশায় ওয়াজেদ আলী, শরীয়তপুরের নড়িয়া আবুল কালাম আজাদ, বরুড়ায় বক্তার হোসেন ও চৌদ্দগ্রামে মীর হোসেন মীরু, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে আসম মাহবুব-উল আলম, ফেনী পৌরসভায় নজরুল ইসলাম স্বপন, নোয়াখালীর চৌমুহনীতে আক্তার হোসেন ও হাতিয়ায় কেএম ওবায়েদ উল্লাহ এবং লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে আবুল খায়ের পাটওয়ারী, ভেদরগঞ্জে আবদুল মান্নান হাওলাদার, জাজিরায় অধ্যাপক আবদুল হক কবিরাজ, জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে মনির উদ্দিন, শেরপুরের নকলায় হাফিজুর রহমান ও নালিতাবাড়ীতে আবু বক্কর সিদ্দিক, ময়মনসিংহয়ের ভালুকায় একেএম মেজবাহ্‌ উদ্দিন, ত্রিশালে নবী নেওয়াজ সরকার, গৌরীপুরে শফিকুল ইসলাম হবি ও ঈশ্বরগঞ্জে হাবিবুর রহমান, নেত্রকোনার দূর্গাপুরে আলা উদ্দিন, সিলেটের গোলাপগঞ্জে মোহাম্মদ রুহেল আহমদ ও জকিগঞ্জে খলিল উদ্দিন, মৌলভীবাজার পৌরসভায় ফজলুর রহমান, কুমিল্লার লাকসামে আবুল খায়ের।

এর আগে তৃতীয় ধাপের ৬৪ পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে গত রোববার থেকে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে ফরম বিতরণ শুরু করে আওয়ামী লীগ। দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চলে ফরম বিক্রি ও জমা গ্রহণ কার্যক্রম। শেষ সময় পর্যন্ত মোট ৩৫২ জন মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। তাদের মধ্য থেকে তৃতীয় ধাপের ৬৪ পৌরসভায় দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করলো দল।

তৃতীয় ধাপের ৬৪টি পৌরসভার নির্বাচন ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। এসব পৌরসভায় মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ আগামী ৩১ ডিসেম্বর। নির্বাচন হবে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। প্রত্যেকটি কেন্দ্রে ব্যালটের মাধ্যমে ভোট হবে। মনোনয়নপত্র বাছাই আগামী বছরের ৩ জানুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহার আগামী ১০ জানুয়ারি।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *