বগুড়া প্রতিনিধি:
বগুড়ার সদর উপজেলায় ট্রেনে কাটা পড়ে আনিসুর রহমান বাবু (৩৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই যুবককে ধাক্কা দিয়ে ট্রেনের নিচে ফেলে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে দুই যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

সোমবার বিকেলে উপজেলার কৈচড় বাজার এলাকায় এঘটনা ঘটে।

নিহত আনিসুর রহমান বাবু বগুড়া শহরের শিববাটি এলাকার আফসার আলীর ছেলে। তিনি পেশায় একজন গ্রীল মিস্ত্রি।

আটকৃতরা হলো- লুৎফর রহমান ও গোলাম রব্বানী। এদের বাড়ী জেলার কাহালু উপজেলার পিলকুঞ্জ এলাকায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকেলের দিকে বাবুসহ চার যুবক পায়ে হেঁটে কৈচর বাজার থেকে কাহালু যাওয়ার সময় সান্তাহার থেকে দিনাজপুরগামী দোঁলনচাপা এক্সপ্রেস ট্রেনটি কৈচড় এলাকায় পৌঁছালে দুই যুবক বাবুকে ট্রেনের নিচে ধাক্কা দিয়ে দৌড় দেয়। বাবু ট্রেনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই মারা যান। দুই যুবককে দৌড়াতে দেখে স্থানীয় লোকজন ধাওয়া করে তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

রেলওয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। ফাঁপোড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মহররম আলী এ প্রতিবেদককে বলেন, চার ব্যক্তি একসঙ্গে কৈচর থেকে কাহালু যাওয়ার সময় তাদের একজন ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত হন। স্থানীয়রা বলছে, তাকে ধাক্কা দিয়ে ট্রেনের নিচে ফেলে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

রেলওয়ে পলিশের এএসআই লিপি বেগম বলেন,এটি আসলে হত্যা না আত্মহত্যা তা বলা যাচ্ছে না। ময়না তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন, আটককৃতদের জনতার হাত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের পরিবার থেকে এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *