কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের টেকনাফে সাড়ে তিন লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা ছ্যুরিখাল সীমান্ত এলাকা দিয়ে প্রবেশের সময এসব ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. ফয়সল হাসান খান বলেন, গোপন সংবাদে জানা যায় মঙ্গলবার রাতে ২ বিজিবির আওতাধীন লেদা বিওপি’র দায়িত্বপূর্ণ লেদা ছ্যুরিখাল এলাকা দিয়ে মিয়ানমার হতে ইয়াবার একটি বড় চালান বাংলাদেশে ঢুকতে পারে।

এমন খবরে লেদা বিওপি’র একটি বিশেষ টহল দল দ্রুত বর্ণিত এলাকায় গমন করে সেখানে অবস্থান গ্রহণ করে। রাত সাড়ে ৮ ঘটিকার সময় উক্ত টহল দল কয়েকজন ব্যক্তিকে নাফ নদীতে জোয়ার থাকা অবস্থায় একটি নৌকাযোগে লেদা ছ্যুরিখাল সংলগ্ন কেওড়া জঙ্গলে প্রবেশ করতে দেখে চ্যালেঞ্জ করে।

উক্ত ব্যক্তিরা দূর হতে টহল দলের উপস্থিতি লক্ষ্য করে কেওড়া জঙ্গলের আড় ব্যবহার করে অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে নৌকাটি বিপরীত দিকে ঘুরিয়ে শুন্য রেখা অতিক্রম করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলে যায়। পরবর্তীতে টহল দল বর্ণিত স্থানে পৌঁছে কেওড়া জঙ্গল তল্লাশি করে ইয়াবা পাচারকারীদের ফেলে যাওয়া ৪টি প্লাস্টিকের বস্তা উদ্ধার করে। বস্তাগুলো খুলে গণনা করে ৩ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। যার আনুমানিক মূল্য ১০ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

ইয়াবা পাচারকারীদের আটকের জন্য পার্শ্ববর্তী স্থানে পরবর্তী ২ ঘণ্টা যাবৎ অভিযান পরিচালনা করা হলেও কোনো পাচারকারীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। উক্ত স্থানে অন্য কোনো অসামরিক ব্যক্তিকে পাওয়া যায়নি। তবে তাদের শনাক্ত করার জন্য অত্র ব্যাটালিয়নের গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত মালিকবিহীন ইয়াবাগুলো বর্তমানে ব্যাটালিয়ন সদরের স্টোরে জমা রাখা হবে এবং প্রয়োজনীয় আইনি কার্যক্রম গ্রহণ পরবর্তীতে তা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *