নাটোর প্রতিনিধি:

পাবনার চাটমোহর উপজেলার নড়াইখালি গ্রামের আব্দুল মান্নানের স্ত্রী হুসনা বেগম (৫০)কিছুদিন আগে নিজের টিউমার অপারেশন করে সুস্থ হয়ে বাড়িতে যান। আজ সকালে মেয়ে রোজিনা খাতুন(৩২)ও মেয়ের জামাইকে নিয়ে নাটোরে যাচ্ছিলেন ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পথিমধ্যে বাস চালকের অসতর্কতায় মেয়ে ও নিজের জীবনের প্রদীপ নিবে যায় অকালে।

ঘটনাটি ঘটে আজ সকালে নাটোর-পাবনা মহাসড়কের গোধড়া এলাকায়।নিয়ন্ত্রন হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে মা ও মেয়ের মৃত্যু হয়। তাদের সাথে থাকা জামাইসহ আহত হয় আরও ১০জন।

নিহতরা হলেন-পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার নড়াইখালি গ্রামের আব্দুল মান্নানের স্ত্রী হুসনা বেগম (৫০) এবং তার মেয়ে ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলি গ্রামের শামীম হোসেনের স্ত্রী রোজিনা খাতুন (৩২)।

নিহত মা ও মেয়ে নাটোর ব্যাপ্টিস্ট মিড মিশন হাসপাতালে গলায় টিউমারজনিত অপারেশন পরবর্তী চিকিৎসা নিতে যাচ্ছিলেন বলে জানায় আহত শামীম হোসেন।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি খন্দকার শফিকুল ইসলাম জানান, সোমবার সকালে গোধড়া এলাকায় পাবনা থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী যাত্রীবাহী বাস চঞ্চল পরিবহন একটি ট্রাককে ওভারটেক করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে হুসনা বেগম ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে রোজিনা বেগমকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান।

এ ঘটনায় নিহত রোজিনা বেগমের স্বামী শামীম হোসেনসহ কমপক্ষে ১০ জনকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধার করে বনপাড়া হাইওয়ে থানায় রাখা হয়েছে বলে জানান ওসি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *