অনলাইন ডেস্ক:
জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি। এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।সাবেক এই কংগ্রেস নেতাকে দিল্লির একটি সামরিক হাসপাতালে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রাখা হয়েছে। মস্তিস্কে রক্তজমাটের পাশাপাশি করোনাতেও সংক্রমিত হয়েছেন প্রণব মুখার্জি।

সোমবার নয়াদিল্লির আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল হাসপাতালে প্রণব মুখার্জির মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। জানা গেছে, সফলভাবেই সেই অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে।

আঘাতের কারণে তার মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধেছিলো। অস্ত্রোপচারে তা অপসারণ করা হয়। এরপর তার শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন হয়ে পড়ে। তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেয়া হয়।

৮৪ বছর বয়স্ক প্রণব কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত। সোমবার সকালে এক টুইটে নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেন। গত এক সপ্তাহে কেউ তার সংস্পর্শে আসলে তাকে সেলফ আইসোলেশনে থাকতে ও করোনা টেস্ট করাতে পরামর্শ দিয়েছেন ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করা প্রণব।

তিনি বলেন, হাসপাতালে করোনার নমুনা পরীক্ষার পর আজ আমার পজিটিভ রেজাল্ট এসেছে। গত এক সপ্তাহে যারা আমার কাছাকাছি এসেছিলেন আমি তাদেরকে আইসোলশনে থাকার অনুরোধ করবো। সেই সঙ্গে করোনা টেস্ট করিয়ে নেয়ার অনুরোধ করব’-যোগ করেন প্রণব।

আনন্দবাজার তাদের এক প্রতিবেদনে বলে, টয়লেটে পড়ে গিয়েছিলেন প্রণব মুখার্জি। তার মাথায় আঘাত লেগেছিল। মাথা ফাটেনি, কিন্তু স্নায়ুর কিছু সমস্যা দেখা দেয়ায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

পরীক্ষা করে দেখা যায়, তার মাথায় রক্ত জমাট বেঁধে আছে। জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করা দরকার। তার জন্য প্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা করতে গিয়েই ধরা পড়ে, তার কোভিডও হয়েছে। এ দিনই অস্ত্রোপচার করা হয় প্রণবের। তাকে ভেন্টিলেশনে দিয়ে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *