জেলা প্রতিনিধি,নড়াইল:

জিডি করেও শেষ রক্ষা হলো না, পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে বিরোধের জেরে নড়াইলে তানিয়া নামে এক গৃহবধূকে এ্যাসিড ঝলসে দিলো দুর্বৃত্তরা। সোমবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে নড়াইল সদর উপজেলার বাহিরগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সংকটাপন্ন তানিয়াকে খুলনা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে নেয়া হয়েছে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানায়, যশোর শংকরপাশার মাসুদুল ইসলাম লাড্ডুর স্ত্রী তানিয়ার বাবার বাড়ি নড়াইল সদর উপজেলার বাহিরগ্রামের জুয়েল মোল্যা ও ওহিদুল তাদের মাছের ঘেরের লভ্যাংশ দেয়ার কথা বলে লাড্ডু ও তানিয়া দম্পতীর নিকট থেকে সাড়ে ১৫ লাখ টাকা নেয়, কিন্তু ১ বছর পার হয়ে গেলেও লাভ-আসল কিছুই ফেরত না দেয়ায় জুয়েলদের সঙ্গে লাড্ডু-তানিয়া দম্পতীর বিরোধ বাঁধে।

পাওনা টাকা চাইতে যাওয়ায় সম্প্রতি জুয়েল, ওহিদুলসহ তাদের সাঙ্গপাঙ্গো তানিয়াকে এসিডে ঝলসে দেয়ার হুমকি দিয়ে আসছিল। তাদের অব্যাহত হুমকির মুখে গত ১৩ আগস্ট নড়াইল সদর থানায় জিডি করেন তানিয়া। জিডির তদন্ত কর্মকর্তার ফোন পেয়ে সোমবার সকালে যশোরের শংকরপাশা থেকে তানিয়া নড়াইলের বাহিরগ্রামে আসেন। সেখানে অবস্থানকালে তিনি রাতে নিজেদের বাড়ি থেকে চাচাতো ভাইয়ের বাড়ি যাওয়ার পথে বাড়ির আশপাশে পূর্ব থেকে ওৎপেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তার শরীরে এ্যাসিড ছুড়ে মারে।

এ সময় তানিয়ার আর্তচিৎকারে স্বজন ও স্থানীয়রা গিয়ে তাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তানিয়াকে উচ্চতর চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেলের বর্ণ ইউনিটে স্থানান্তরিত করা হয়। এসিডে তানিয়ার পিটসহ শরীরের ২৭ভাগ ঝলসে গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। এ ঘটনায় জড়িতদের ধরেতে চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *