আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মহামারি নভেল করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কায় সতর্কতার মাঝে জার্মানির বার্লিনে স্বাস্থ্যবিধি না মানা বেপরোয়া এক মিছিল হয়েছে। সেখান থেকে ৩০০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

জার্মানি ছাড়াও লন্ডনের ট্রাফালগার স্কয়ারে স্বাস্থ্যবিধির নিয়মকানুনের বিরোধিতা করে বিক্ষোভ হয়েছে। এতে বিক্ষোভকারীরা ‘নিউ নরমাল = নিউ ফ্যাসিজম’ লেখা প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করেন। এ ছাড়া ফ্রান্সের প্যারিস, অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা ও সুইজারল্যান্ডের জুরিখের মতো শহরেও করোনাবিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে।

গতকাল শনিবার করোনাকে ষড়যন্ত্র বলে স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে জার্মানির বার্লিনের রাস্তায় মিছিল করেন অন্তত ৩৮ হাজার মানুষ। উগ্র ডানপন্থি, উগ্র বামপন্থি এবং ষড়যন্ত্র তত্ত্বে বিশ্বাসীদের আহ্বানে ব্রান্ডেনবুর্গ গেটের সামনে হওয়া এ মিছিল সরাতে গেলে পুলিশকে বাধা দেওয়া হয়। মিছিল থেকে বোতল ও পাথর ছোড়া হয়। ফলে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে ৪৫ জন পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন। তিনজনকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এসব তথ্য দিয়েছে।

ইউরোপের বিভিন্ন স্থানে করোনা সংক্রমণ শুরু হয়েছে নতুন করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার স্বার্থে স্বাস্থ্যবিধি মানা দরকার হলেও, মাস্ক না পরে, শারীরিক দূরত্ব বজায় না রেখে, এমন সমাবেশের তীব্র নিন্দা জানিয়েছএন বার্লিনের মেয়র মিশায়েল ম্যুলার।

গতকাল শনিবার স্বাস্থ্যবিধি না মেনে করোনাবিরোধী বিক্ষোভের বিরোধিতাও হয়েছে। সেই সমাবেশে সবাই মাস্ক পরেছেন, সামাজিক দূরত্বও বজায় রেখেছেন।

এ পর্যন্ত জার্মানিতে দুই লাখ ৪২ হাজার ৮২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৯ হাজার ৩৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়েছে দুই লাখ ১৭ হাজার ৪৮৪ জন। বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সর্বশেষ পরিসংখ্যান জানার অন্যতম ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার এসব তথ্য দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *