নিজস্ব প্রতিবেদক:

‘মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, ইএফডিতে এনবিআর’স্লোগানকে সামনে রেখে আজ ১০ ডিসেম্বর উদযাপিত হচ্ছে জাতীয় মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট বা মূসক) দিবস।

যথাযথ ভ্যাট আদায়ে জনসাধারণকে অধিক সচেতন করতেই ২০১১ সাল থেকে প্রতি বছর উদযাপিত হচ্ছে জাতীয় ভ্যাট বা মূসক দিবস। দিবসের পাশাপাশি ১০-১৫ ডিসেম্বর সপ্তাহব্যাপী ভ্যাট সপ্তাহ উদযাপন করছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ উপলক্ষে এনবিআর বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। করোনা ভাইরাসের মতো জাতীয় দূর্যোগের কারণে এবারে র‌্যালি ও বড় আকারের যে কোনো অনুষ্ঠান থেকে বিরত থাকছে এনবিআর।

বাংলাদেশে ১৯৯১ সালে মূসক প্রবর্তিত হওয়ার পর এ বিষয়ে অধিক সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য ২০১১ সাল থেকে দিবস ও সপ্তাহ উদযাপন করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় এনবিআরের সমেম্মলন কক্ষে জাতীয় পর্যায়ে সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী ৯টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা প্রদান করা হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, বিশেষ অতিথি হিসেবে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে। এছাড়া জেলা পর্যায়ে সংশ্লিষ্ট কমিশনারেট কর্তৃক উৎপাদন, সেবা ও ব্যবসায়ী পর্যায়ে ৩টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা প্রদান করা হবে।

ভ্যাট দিবসের বিষয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, ভ্যাট দিবস যথাযথভাবে উদযাপনের জন্য ভ্যাট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রচার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে দেশের সব মোবাইল কোম্পানির মাধ্যমে মোবাইল ফোন গ্রাহকদের ১০ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত এসএমএসের মাধ্যমে অবহিত করা হবে। রেডিও, টেলিভিশন, প্রিন্ট মিডিয়া, অনলাইনভিত্তিক মিডিয়া ইত্যাদি জাতীয় গণমাধ্যমে ব্যাপক প্রচারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বিতরণ করা হবে স্টিকার, লিফলেট।

ইএফডির লটারির বিষয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ইএফডি স্থাপন করা দোকান থেকে কেনাকাটায় লটারির মাধ্যমে পুরস্কারের যে ঘোষণা করা হয়েছে, তার প্রথম লটারি আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। এই লটারিতে মোট ১০১টি পুরস্কার থাকবে। প্রথম পুরস্কার হবে ১ লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার ৫০ হাজার টাকা, তৃতীয় পুরস্কার ২৫ হাজার টাকা (৫টি)। এভাবে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত মোট ১০১টি পুরস্কার থাকবে।

পুরস্কারের টাকা সম্পূর্ণ আয়করমুক্ত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *