নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিশ্ব এখন চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের কথা বলছে এবং এই বিপ্লবের জন্য অত্যন্ত দক্ষ জনশক্তি অপরিহার্য।চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের অপরিসীম সুযোগ কাজে লাগাতে এখন থেকেই যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে। সেই ধরনের জনশক্তিই আমাদের তৈরি করতে হবে।

বুধবার দেশের ফ্রিল্যান্সারদের মাঝে পরিচয়পত্র সরবরাহ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল মিলনায়তনে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দেন তিনি।

দেশের ছয় লাখেরও বেশি ফ্রিল্যান্সারকে পরিচয়পত্র সরবরাহ করার বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ফ্রিল্যান্সিং পেশাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

‘এটা ফ্রিল্যান্সারদের সামাজিক পরিচিতির পাশাপাশি ব্যাংক ঋণ পেতে সহায়তা করবে এবং ক্ষমতায়নে সহযোগিতা করবে। চাকরি খোঁজার ঝামেলা আর করতে হবে না। তারা নিজেরাই কিছু কাজ করার সাহস পাবে,’ বলেন শেখ হাসিনা।

দেশকে অর্থনৈতিকভাবে স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ গ্রহণের জন্য অত্যন্ত দক্ষ জনশক্তি তৈরির ওপর জোর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের অপরিসীম সুযোগ কাজে লাগাতে এখন থেকেই যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘অন্যথায় আমরা পিছিয়ে যাব, আমরা পেছনে থাকতে চাই না।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশেকে পুরো বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে এবং সে লক্ষ্যে পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন। প্রযুক্তিগতভাবে পুরো বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আমরা এগিয়ে যাব।’

দেশের তরুণ-তরুণীরা খুবই মেধাবী এবং সুযোগ পেলে তারা যেকোনো কিছু দ্রুত শিখতে পারে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারের কাজ সেই সুযোগ তৈরি করা এবং আমরা তা করে যাচ্ছি।’ ‘আমরা যদি এসব মেধাবী তরুণ-তরুণীদের কাজে লাগাতে পারি তাহলে কেবল দেশে নয়, বিদেশেও কর্মসংস্থান সৃষ্টি সম্ভব হবে,’ বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আইসিটির সর্বোত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে প্রযুক্তিগতভাবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই সরকারের লক্ষ্য।‘আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ হওয়ার পাশাপাশি বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবেও স্বাবলম্বী হবে,’ বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাত বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *