মাসুদ আলম,খুলনা:

জেলার বটিয়াঘাটা উপজেলার সুখদাড়া গ্রামে এক কিশোরীকে (১২) ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক সঞ্জয় শীলকে (৫০) আসামি করে বটিয়াঘাটা থানায় মামলা করেছে ভুক্তভোগী কিশোরীটির মা।

কিশোরীর মা জানান,অভিযুক্ত হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক তার বাড়িতে গিয়ে ১২বছরের কিশোরী মেয়েকে চিকিৎসার নামে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে অচেতন করে ধর্ষণ করেছে।

বটিয়াঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মামলা সূত্রে জানান, ছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, উপজেলার গঙ্গারামপুর এলাকার মৃত. বিনোদ শীলের ছেলে হোমিওচিকিৎসক সঞ্জয় শীলের কাছে মাঝেমধ্যে ওই ছাত্রী ও তার মা চিকিৎসা নিতে যেতেন। চিকিৎসকও মাঝে-মধ্যে চিকিৎসা দিতে ওই ছাত্রীদের বাড়িতে আসতেন। শনিবার ছাত্রীর বাড়িতে ঢুকে তার মাকে ডাকাডাকি করে না পেয়ে ছাত্রী সাড়া দিলে চিকিৎসক ঘরে প্রবেশ করে তার শারীরিক খোঁজখবর নিয়ে চিকিৎসার নামে ঘুমের ওষুধ খাওয়ান। একপর্যায়ে ছাত্রী অচেতন হয়ে পড়লে চিকিৎসক তাকে ধর্ষণ করে।

ওসি বলেন, মামলার পর অভিযুক্তকে গ্রেফতারে অভিযান চালানো হয়েছে। আসামি পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতারে বিলম্ব হচ্ছে। উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি রবিউল ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *