নিজস্ব প্রতিবেদক:

গ্রাহকদের অজান্তে মোবাইলের ব্যালেন্স থেকে অপারেটররা টাকা কেটে নেয়ার অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।

একটি বিশেষ জরিপের মাধ্যমে কমিশন প্রমাণ পেয়েছে, মোবাইল গ্রাহকের কোনও ধরনের সম্মতি ছাড়াই বিভিন্ন ধরনের ভাস (ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিসেস) সেবা চালু করে ব্যালেন্স থেকে টাকা কেটে নিয়েছে।

সম্প্রতি দু’টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন- বিটিআরসি। টেলিকম অপারেটরের সহায়তা ছাড়া এভাবে কোনো সেবা চালু সম্ভব নয়- বলছে ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস প্রোভাইডাররা। অন্যদিকে এই অনিয়মের দায় নিতে নারাজ টেলিকম কোম্পানিগুলো।

ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস বা ভ্যাসের মাধ্যমে মোবাইল ফোনে ওয়েলকাম টিউন, নিউজ এলার্টসহ বিনোদন ও মাল্টিমিডিয়ার বিভিন্ন সেবা দেয় টেলিকম অপারেটররা। কিন্তু, অনুমতি ছাড়াই এসব সার্ভিস চালু করে টাকা কেটে নেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ গ্রাহকদের।

গ্রাহকদের এসব অভিযোগের তদন্ত করে টেলিকম কোম্পানিতে ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস দিচ্ছে এমন দু’টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে গ্রাহকের অজান্তে সেবা চালুর বিষয়ে তথ্য পেয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন-বিটিআরসি।

বিটিআরসির ভাইস-চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বলেন, ‘আমরা তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি।’ কমিশনের বৈঠকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানান তিনি।

বিটিআরসি গ্রাহকদের অভিযোগগুলো থেকে দ্বৈবচয়নের ভিত্তিতে ১০০ জন গ্রাহকের ওপর জরিপ চালিয়ে অভিযোগের সত্যতা পায় বিটিআরসি। কমিশনের সিস্টেম অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের কর্মকর্তারা গ্রাহকদের ফোন করে তথ্য জেনে যাচাই বাছাই করেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছান। এর আগে দুটি ভাস প্রতিষ্ঠানের গত ৬ মাসের বিভিন্ন তথ্য পর্যালোচনা করে কমিশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *