নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজধানীর মিরপুর এলাকার দেড় হাজার তিতাস গ্রাহকের গ্যাস বিলের ১০ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় ওমর ফারুককে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৪। গতকাল রোববার দিবাগত রাতে চট্টগ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রথম আলোকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান।

র‌্যাবের ভাষ্য, ২০১৮ সালে ওমর ফারুক মিরপুর-২–এর ষাট ফিট এলাকায় ইন্টার্ন ব্যাংকিং অ্যান্ড কমার্স নামের একটি এজেন্ট ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু করেন। তিনি এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ওই এলাকার প্রায় দেড় হাজার গ্রাহকের গ্যাস, পানি ও বিদ্যুৎ বিলের টাকা সংগ্রহ করতেন। কিন্তু গত দুই বছরে গ্রাহকের কাছ থেকে ১০ কোটি টাকা সংগ্রহ করলেও তা জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করেন। পরে গত জানুয়ারি মাসে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ মিরপুর এলাকার দেড় হাজার গ্রাহকের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার উদ্যোগ নেয়। গ্রাহকেরা তখন প্রতারণার শিকার হয়েছেন বুঝতে পেরে ওমর ফারুকের শাস্তির দাবিতে আন্দোলনে নামেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৩ জানুয়ারি ইন্টার্ন ব্যাংকিং অ্যান্ড কমার্স নামের প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলিয়ে আত্মগোপনে চলে যান ওমর ফারুক।

র‌্যাব বলছে, ওমর ফারুকের গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী। ২০০৯ সালে তিনি মাধ্যমিক পাস করেন। ২০১৪ সালে তিনি ঢাকার মগবাজারে এসে বিকাশের ব্যবসা শুরু করেন। আর ২০১৫ সালে তিনি মিরপুরের আহম্মেদনগরে বিকাশের ব্যবসা শুরু করেন। পরে তিনি ইন্টার্ন ব্যাংকিং অ্যান্ড কমার্স নামের প্রতিষ্ঠান খুলে প্রতারণা শুরু করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *